জেনে নিন কোন দুটি ভাইরাস আপনার ব্যাংকের তথ্য চুরি করছে

এই প্রথমবার নয় যে কুইক হিল সিকিউরিটিজ ল্যাব ম্যালওয়্যার সনাক্ত করেছে

0
373

কুইক হিল সিকিউরিটি ল্যাব Android.Marcher.C এবং Android.Asacub.T নামে দুটি ট্রোজান ভাইরাস খুঁজে পেয়েছে।।এই ম্যালওয়্যার দুটি জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপ্লিকেশন হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুক, স্কাইপি, ইনস্টাগ্রাম, টুইটার এবং কিছু প্রধান ব্যাংকিং অ্যাপ্লিকেশনগুলির মাধ্যমে অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের স্মার্টফোনে আসছে । উভয় ট্রোজান ভাইরাস আজকের ভারতীয় অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের যথেষ্ট প্রভাবিত করছে। গ্লোবাল আইটি নিরাপত্তা ফার্ম কুইক হিল দাবি করেছে যে এই ভাইরাস দুটি ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য চুরি করতে পারে।

ব্যাংকের তথ্য চুরি করছে এই ভাইরাস :

গবেষক সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, জনপ্রিয় অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে এই ম্যালওয়্যার ব্যবহারকারীর সমস্ত তথ্য যথা মেসেজ,পাসওয়ার্ড ইত্যদি হাতিয়ে নিচ্ছে।যেহেতু ভাইরাস দুটি আপনার ফোনের সবকিছুর এক্সেস নিয়ে নিচ্ছে তাই হ্যাকাররা বাড়ি বসেই আপনার তথ্য চুরি করছে ।

Third party app ডাউনলোড করতে ব্যারন করা হচ্ছে:

কুইক হিল প্রতিষ্ঠাতা সঞ্জয় কাটকার বলেন যে ভারতীয় ব্যবহারকারীরা যাচাই ছাড়াই থার্ড পার্টি অ্যাপ্লিকেশনগুলি ডাউনলোড করে। এই কারণে, হ্যাকাররা ব্যবহারকারীদের ফোনের পূর্ণ এক্সেস পাচ্ছে। হ্যাকাররা এই সুযোগের পূর্ণ সুবিধা গ্রহণ করছে এবং ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ করছে। গত 6 মাসে হ্যাকাররা এই ম্যালওয়্যার বা ভাইরাসগুলির সাহায্যে ভারতীয় মোবাইল ব্যবহারকারীকে লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করেছে। অ্যান্ড্রয়েড.মার্চার.সি ভাইরাস অ্যাডোব ফ্ল্যাশ প্লেয়ার আইকন ব্যবহার করে, যার কারণে এটি জেনুইন অ্যাপের মত দেখায়।

 232 ব্যাংক App ক্ষতিগ্রস্ত:

এই প্রথমবার নয় যে কুইক হিল সিকিউরিটিজ ল্যাব ম্যালওয়্যার সনাক্ত করেছে।সর্বশেষ ল্যাবটি Android.banker.A2f8a নামে পরিচিত ভাইরাসটি সনাক্ত করেছিল।যার ফলে 232 টিরও বেশি ব্যাংকিং এবং ক্রিপ্টোক্যানক্রিয়েটি অ্যাপ্লিকেশন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল।

Google প্লে স্টোরে ফেক অ্যাপ কিভাবে চিনবেন

পড়ুন :

কিভাবে নিরাপদ থাকবেন :

নিরাপত্তা গবেষকরা অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের জন্য উপদেশ দিয়েছেন তারা যেন থার্ড পার্টি অ্যাপস ইনস্টল না করে। এছাড়াও, Google Play প্রটেক্ট পরিষেবা সবসময় চালু করে রাখে।

কুইক হিল প্রতিষ্ঠাতা সঞ্জয় কাটকার বলেন যে “Indian users often download unverified apps from third-party app stores and links sent through SMS and email. This gives hackers a lucrative opportunity to steal confidential information from unsuspecting users”.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here