সাবধান ! একই স্মার্টফোনের দামের পার্থক্য আমাজন ফ্লিপকার্টে দ্বিগুন

আপনি যদি আমাজন-ফ্লিপকার্টের মতো সংস্থার থেকে কেনাকাটা করে থাকেন তবে সতর্ক হোন

0
94

এই উৎসবের মরসুমে ই-বিপণন সংস্থা থেকে আমরা অনেক জিনিসপত্র কেনাকাটা করেছি।সাধারণত ই-বিপণন সংস্থা থেকে আমরা স্মার্টফোনই বেশি কিনে থাকি।তবে আপনি যদি আমাজন-ফ্লিপকার্টের মতো সংস্থার থেকে কেনাকাটা করে থাকেন তবে সতর্ক হোন।ই-বিপণন সংস্থা থেকে অনলাইনে কেনাকাটা করার সময়ও আপনাকেও ঠকানো হতে পারে।আজ আমরা আপনাকে একটি স্মার্টফোন সম্পর্কে বলতে যাচ্ছি যার মূল্য অ্যামাজন এবং ফ্লিপকার্টে আলাদা। একই স্মার্টফোনের দামের পার্থক্য আমাজন ফ্লিপকার্টে দ্বিগুন ।

বাস্তবে দেখুন :

XOLO ERA 1X PRO স্মার্টফোনটির অফিসিয়াল সাইটে দাম 5,777 টাকা।আপনি যখন স্মার্টফোনটি অফিসিয়াল সাইট থেকে কিনতে যাবেন তখন আপনাকে ফ্লিপকার্ট সাইটে রিডিরেক্ট করা হবে। যেখানে এই স্মার্টফোনের দাম 5,499 টাকা।

একই স্মার্টফোনের দামের পার্থক্য আমাজন ফ্লিপকার্টে দ্বিগুন

যদি আপনি স্মার্টফোনটি আমাজন থেকে কিনতে চান তবে আপনাকে 12,999 টাকা দিতে হবে। অর্থাৎ একই স্মার্টফোনের দামের পার্থক্য আমাজন ফ্লিপকার্টে দ্বিগুন।

একই স্মার্টফোনের দামের পার্থক্য আমাজন ফ্লিপকার্টে দ্বিগুন

ঠিক এভাবেই একই জিনিসের দাম ভিন্ন ভিন্ন সাইটে আলাদা রাখা হয়।সমস্ত ই-বিপণন কোম্পানি তাদের অনলাইন পোর্টালে কোনও স্মার্টফোনের সর্বোচ্চ মূল্য লিখে রাখে।আপনি যখন স্মার্টফোনটি কোনো অনলাইন সংস্থা থেকে কিনবেন তখন অনেক ডিসকাউন্টের কথা বলা হয়ে থাকে।যদিও আপনি ওই একই স্মার্টফোন অফলাইনে আরো সস্তায় পেতে পারেন।

পড়ুন : ফ্লিপকার্ট, অ্যামাজন ও পেটিএম থেকে স্মার্টফোন কেনার সময় এই বিষয়গুলো মাথায় রাখুন

করণীয় কি ?

মূল্য জেনে নিন :

কোনও স্মার্টফোন কেনার সময়, দয়া করে ভিন্ন ভিন্ন ওয়েবসাইট থেকে সঠিক মূল্য জেনে নিন।অনেকসময়ে, বিভিন্ন ওয়েবসাইটে কোনো স্মার্টফোনের দামের বিশাল পার্থক্য থাকে। অতএব,অনলাইনে যখন অর্ডার করবেন ,বিভিন্ন ওয়েবসাইট থেকে সঠিক দাম জেনে নেবেন।

সেরা অফারটি মাথায় রাখুন :

ই-কমার্স সাইটগুলি থেকে স্মার্টফোন অর্ডার দেওয়ার সময়,খুঁজে দেখুন কোন ওয়েবসাইট সেরা অফার দিচ্ছে। যেখানেই সেরা অফার দেওয়া হচ্ছে সেখানে থেকে স্মার্টফোন কিনে নিন।তবে অবশ্যই যাচাই করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here