ফেসবুকে পেজ বা গ্রুপ আছে ? জেনে নিন নতুন নির্দেশিকা,নইলে বন্ধ হয়ে যাবে পেজ

বিতর্কিত মিমস বা লেখা পোস্টগুলিকে তুলে নেওয়া হবে

0
247

ফেসবুকে প্রচুর পেজ রয়েছে যেগুলি হয়তো কোন ব্যক্তির নামে তৈরি তাদের ফ্যান মেড ফেক পেজ। এবং বিভিন্ন পোস্ট আছে যেগুলি খুবই অপ্রীতিকর। এই সমস্ত ফেক পেজ এবং অপ্রীতিকর পোষ্টের সংখ্যা কমাতে ফেসবুক একটি পদক্ষেপ নিয়েছে যাতে ফেক অ্যাকাউন্ট ও ফেক পেজ ব্লক করে দেয়া হবে এবং বিতর্কিত মিমস বা লেখা পোস্টগুলিকে তুলে নেওয়া হবে।
বিগত কয়েক বছর ধরে ভুয়ো খবর ছড়ানো নিয়ে ফেসবুককে অনেক সমালোচনার মুখোমুখি হতে হয়েছে। আমেরিকা এবং ইউরোপ পার্লামেন্টে কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা স্ক্যান্ডাল নিয়ে ফেসবুক সিইও মার্ক জুকারবার্গকে অনেক কটাক্ষের সম্মুখীন হতে হয়। ফেসবুকের বিরুদ্ধে ২০১৬ তে হওয়া আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ইলেকশনকে প্রভাবিত করার অভিযোগও ওঠে। এছাড়াও বিভিন্ন বিষয়ে বিভিন্ন ফেক পোস্ট অথবা ভুয়ো খবর ছড়ানোর জন্য ফেসবুককেই দোষ দেওয়া হয়। তাই মাথার উপর থেকে এই বদনাম কিছুটা কমানোর জন্য ফেসবুক কর্তৃপক্ষ নকল পেজ এবং অ্যাকাউন্টকে বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
ফেসবুক আরো কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে যেমন, যেসব পোস্ট তাদের নির্দেশিকা মানছে না সেগুলিকে তুলে নেওয়া হবে। এবার থেকে প্রত্যেক পেজের অ্যাডমিন একটি নতুন ট্যাব দেখতে পারবেন তাদের পেজে। এই ট্যাবটিতে ফেসবুকের কমিউনিটি স্ট্যান্ডার্ড এবং বিতর্কিত পোস্টের ব্যাপারে বলা থাকবে। নতুন এই ট্যাবটির মধ্যে দুটি অংশে থাকবে যার প্রথমটি হবে এমন কিছু বিতর্কিত পোস্টের জন্য যেগুলিকে ফেসবুকের নির্দেশিকা লঙ্ঘনের জন্য সে পেজ থেকে তুলে দেওয়া হয়েছে। এবং দ্বিতীয়টিতে থাকবে এমন পোস্ট যেগুলিকে ভুয়ো খবর বলে চিহ্নিত করা হয়েছে।
যদি আপনার পেজে আপনি এমন কোন পোস্ট তৈরি করেন যাতে বিতর্কিত কোন বক্তৃতা, হিংস্রতা, নগ্নতা, কোন বিখ্যাত ব্যক্তিত্বের মুখে আপনার বানানো কথা চাপিয়ে দেওয়া , কাউকে মানসিক হয়রানি ইত্যাদি করা থাকে তাহলে সেই পোস্টগুলি কে তুলে নেবে ফেসবুক। এবং ফেসবুক চাইলে আপনার পেজটিকে ব্লকও করে দিতে পারে। এছাড়া যদি কোন পেজ ‘ফেক’ পেজ বলে চিহ্নিত হয় তাহলে তৎক্ষনাৎ সেটিকে বন্ধ করে দেয়া হবে।
ইতিমধ্যেই বহু ফেক অ্যাকাউন্টকে ফেসবুক ব্লক করে দিয়েছে। ফেসবুক সিইও মার্ক জুকারবার্গ জানিয়েছেন এর ফলে ভুয়ো খবর তৈরি হওয়ার সংখ্যা অনেক কমবে এবং পেজ অ্যাডমিনরা ফেসবুকের কমিউনিটি গাইডলাইন সম্পর্কে সচেতন হবে ফলে মানুষের কাছে ফেসবুক আরো বেশি করে সঠিক খবর পৌঁছে দিতে পারবে।

পড়ুন : কোনো অ্যাপ ছাড়াই ইউটিউব ভিডিও কিভাবে ডাউনলোড করবেন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here