১৫ বছর পূর্ণ করল Gmail, গুরুত্বপূর্ণ ৫ টি তথ্য জেনে নিন

0
115

গুগলের ইমেল পরিষেবা জিমেইল ,সোমবারে ১৫ বছর পূর্ন করলো।মাসিক ১.৫ বিলিয়নেরও বেশী লোক সক্রিয় ভাবে জিমেল ব্যবহার করে,বর্তমানে জিমেল পুরো বিশ্বে অন্যতম জনপ্রিয় ইমেল ক্লায়েন্ট।

জিমেলের শুরুর দিনগুলো :

২০০৪ সালের ১লা এপ্রিল ,ফ্রি ইমেল পরিষেবা হিসাবে জিমেল লঞ্চ করা হয়। প্রথমে এটি লিমিটেড বেটা হিসাবে পাওয়া যেত,২০০৯ সালের ৭ই জুলাই অবধি জিমেল পরীক্ষাধীন ছিল,এরপরই বাণিজ্যিক ভাবে সবার জন্য জিমেল পরিষেবা শুরু হয়।

জিমেল ডেভেলপার :

পল বুচেইট, প্ৰথম জিমেল এর ডেভলপমেন্ট শুরু করেন,যিনি গুগল এর ২৩ তম কর্মচারী ছিলেন,২০০১ সালে তিনি এই প্রজেক্টটি শুরু করেন। গুগলের কোটি কোটি মার্কিন ডলারের এডসেন্সের পিছনেও বুচেইটের অবদান আছে।২০০৬ সালে গুগল ছাড়ার পর তিনি ফ্রেন্ড ফিড নামে একটি কোম্পানি শুরু করেন,যা পরবর্তী সময় ফেসবুক অধিগ্রহন করে। তিনি ওয়াই কম্বিনেটর ফার্মের একজন পার্টনার ছিলেন।

ক্রমবর্ধমান ক্লাউড স্টোরেজ :

আপনি কি জানেন জিমেইলের শুরুর ভার্শন মাত্র ১ জিবির ফ্রী ক্লাউড স্টোরেজ দিত?জিমেইলের একবছর পূর্তি উপলক্ষে এই স্টোরেজ ২ জিবি করা হয়।এরপর কোম্পানি ফ্রী স্টোরেজের সীমা আস্তে আস্তে বাড়াতে থাকে।২০১২ সালে একটি বড় আপডেটের মাধ্যমে জিমেইলের ফ্রী স্টোরেজ ৭.৫ জিবি থেকে বাড়িয়ে ১০ জিবি করে দেওয়া হয়।২০১৩ সালে সেটি ১৫ জিবি অবধি বাড়িয়ে দেওয়া হয়।

ক্রমপরিবর্তমশীল ইন্টারফেস :

শুরুর ইন্টারফেসে কিছু বেসিক ইমেইল এলিমেন্টস থাকলেও ,জিমেইল পরবর্তী কালে অনেক নতুন ফিচার এনেছে। ২০১১ সালে জিমেইল একটি পরিছন্ন ইন্টারফেস সংযোজন করে।কয়েক বছর পর লেবেল ও নিয়ে আসা হয় জিমেইল এর ইন্টারফেসে।

আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স ,মেশিন লারনিং :

গুগল সংযোজন করেছ অনেক ধরনের মেশিন লারনিং ড্রাইভেন ফিচার,যেমন স্মার্ট রিপ্লায়ের মাধ্যমে ইউসাররা তাড়াতাড়ি ইমেইলের রিপ্লাই ড্রাফট করতে পারবে। প্রেডিক্টিভ টাইপিং এবং সার্চ ছাড়াও মেশিন লার্নিংয়ের সাহায্যে জিমেইল সক্ষম হয়েছে স্পাম মেসেজে বন্ধ করতে। গুগল জানিয়েছে এই বছরের শুরুতে ১০০ মিলিয়নের বেশি স্পাম মেসেজ বন্ধ করেছে,মেশিন লার্নিংয়ের সাহায্যে।

পড়ুন : নতুন বছরে বদলে যাবে হোয়াটসঅ্যাপ, দেখে নিন আসন্ন ১০ টি ফিচার