কাজ বিছানায় শুয়ে থাকা, বেতন প্রায় ১৩ লক্ষ টাকা

0
1035

জার্মান এয়ারস্পেস সেন্টার DLR , ইউরোপিয়ান সায়েন্স এজেন্সি (ESA) ও নাসার (NASA) সহায়তায় নতুন একটি প্রজেক্ট শুরু করেছে। এই প্রজেক্টটিতে যারা স্বেচ্ছাসেবক হবেন তাদের ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ১৩ লাখ টাকার সমপরিমাণ ইউরো দেওয়া হবে। তাদের কাজ হবে ৬০ দিনের জন্য বিছানায় শুয়ে থাকা।

এই প্রজেক্ট এর উদ্দেশ্য হলো বিজ্ঞানীরা পরীক্ষা করতে চান কি করে ওজনহীনতা মহাকাশে মানুষের শরীরে প্রভাব ফেলে । এছাড়াও মহাকাশ গবেষনাকারীদের এটাও একটা সুযোগ যে মানুষের মনস্তত্ব সমন্ধে তারা এই ৬০ দিনে প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহ করে নেবেন।এই তথ্য কাজে লাগবে তখন যখন মহাকাশচারীদের অনেক লম্বা সময়ের জন্য মহাকাশে,চাঁদে,বা মঙ্গলে থাকতে হবে ।

এই প্রজেক্ট এর নাম দেওয়া হয়েছে আর্টিফিসিয়াল গ্র্যাভিটি বেড রেস্ট স্টাডি বা সংক্ষেপে ( AGBRESA) । এই প্রজেক্টের ফলে কৃত্রিম মাধ্যাকর্ষণ ক্ষমতা এবং মানুষের ওপর এর প্রভাব সম্পর্কে জানা যাবে। DLR এর একজন বৈজ্ঞানিক এর মতে এর সুফল হিসেবে আমরা একজন মানুষের ওজন হ্রাসের সমস্যার সমাধান করতে পারবো।

এই দুই মাসের সমীক্ষায় দুই এর তিন ভাগ সময়ে স্বেচ্ছাসেবক দের প্রতিদিন ক্রমানুসারে পাল্টে পাল্টে DLR এর শর্ট আর্ম সেন্ট্রিফিউজার এ রাখা হবে। CNN এর রিপোর্ট অনুযায়ী তাদের দেওয়া হবে 16,500 ইউরো বা প্রায় 13 লাখ টাকা।

এই সমীক্ষাতে ইউরোপ,আমেরিকা সহ দেশ থেকে প্রায় সব মহাকাশ বৈজ্ঞানিকদের ডাকা হয়েছে। ১২ জন মহিলা ও ১২ জন পুরুষ স্বেচ্ছাসেবক নেওয়া হবে যারা ৬০ দিন টানা বিছানায় কাটাবে। সমস্ত পরীক্ষা খাওয়া দাওয়া সব কিছুই বিছানাতেই করবে।

তাদের চলাফেরা সব কিছুর ওপরেই বাধা নিষেধ থাকবে। যাতে টেন্ডন ও কঙ্কালতন্ত্রে চাপ কম পড়ে তারজন্য বিছানা গুলি নিচের দিকে মাথার সাথে ৬° কোণ থাকবে। এর ফলে বডি ফ্লুইড গুলি ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা থাকবে যা মহাকাশচারীদের মাধ্যাকর্ষণহীন অবস্থায় অনুভব করতে হয়।

পড়ুন : হাঁটলেই চার্জ হয়ে যাবে মোবাইল ফোন, আসছে ওয়াকিং চার্জার