কম আলোয় ভালো ফটো তুলতে পারবেন এই ফোনগুলো দিয়ে

0
189

যতদিন যাচ্ছে স্মার্টফোনে তত অত্যাধুনিক ফিচার যুক্ত হচ্ছে। ক্যামেরা থেকে পারফরম্যান্স,নতুনত্ব আমরা প্রতি স্মার্টফোনেই দেখতে পাচ্ছি। তবে ক্যামেরা ফিচার যেন অন্যান্য ফিচারের তুলনায় বেশি অত্যাধুনিক হয়েছে। এখন আমরা ফোনে DSLR-র মতো ফটো তুলতে পারি।আবার ফটোর ব্যাকগ্রাউন্ড বা অবজেক্টটিকেও ব্লুর করতে পারি। আজ আমরা কয়েকটি স্মার্টফোন সম্পর্কে বলবো যেগুলো কম আলোয় ভালো ফটো দেয়।

Huawei P30 Pro :

এই ফোনে ৬.৭ ইঞ্চি ওলেড ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। যার স্ক্রিন রেজল্যুশন ২৩৪০ x ১০৮০ পিক্সেল।P30 এর মতো এই ফোনেও কিরিন ৯৮০ প্রসেসর দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও পাবেন ৮ জিবি র‍্যাম ও ১২৮/২৫৬/৫১২ জিবি স্টোরেজ।এই ফোনে ৪০ওয়াট সুপারচার্জের সাথে ৪২০০ এমএএইচ ব্যাটারি আছে।

ফটোগ্রাফির জন্য এই ফোনে পাবেন কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা। যার প্রথমটি ৪০ মেগাপিক্সেল(ওয়াইড এঙ্গেল লেন্স), দ্বিতীয়টি আলট্রা ওয়াইড লেন্সের সাথে ২০ মেগাপিক্সেল(আলট্রা ওয়াইড এঙ্গেল লেন্স) এবং তৃতীয়টি অপটিক্যাল জুম ৮ মেগাপিক্সেল(টেলিফোটো লেন্স ) ও TOF সেন্সর । আগেই বলেছি এই ফোনে পাবেন ৫০এক্স ডিজিটাল জুম। এছাড়াও আছে ৫এক্স অপটিক্যাল জুম, ১০এক্স হাইব্রিড জুম।

Google Pixel 3 :

গুগল পিক্সেল ৩ তেগোরিলা গ্লাস ৫ এর সুরক্ষার সাথে রয়েছে একটি ৫.৫ ইঞ্চির পি – ওএলইডি ডিসপ্লে । স্ক্রিনটির রেজোলিউশন ২১৬০×১০৮০ পিক্সেল এবং আসপেক্ট রেশিও ১৮:৯। পিক্সেল ৩ কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৪৫ প্রসেসর ও অ্যাড্রেনো ৬৩০ জিপিইউ এর সাথে লঞ্চ হয়েছে। ফোনটিতে আছে ৪ জিবি র‌্যাম এবং ৬৪ জিবি/ ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। ফোনটির অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ৯.০ পাই ও এতে ২৯১৫ এম এ এইচ একটি ব্যাটারি আছে। 
ক্যামেরা: এই ফোনটিতে কেবলমাত্র একটি রিয়ার ক্যামেরা থাকলেও সেটি অসাধারণ ফটোগ্রাফি করতে সক্ষম। পিক্সেল ৩ তে রয়েছে ১২.২ মেগাপিক্সেলের লেন্স যার অ্যাপারচার f/১.৮ । এই ক্যামেরাটিতে রয়েছে অপটিক্যাল ইমেজ স্টেবিলাইজেশন , ডুয়াল পিক্সেল ফেজ-ডিটেক্ট অটো ফোকাস। এই ক্যামেরাটির মাধ্যমে আপনারা ২১৬০ পিক্সেল অবধি ভিডিও রেকর্ডিং করতে পারবেন। সেলফির জন্য সামনে আছে (৮+৮) মেগাপিক্সেল ডুয়াল আল্ট্রাওয়াইড লেন্স যা উন্নত মানের লো লাইট ফটোগ্রাফি করতে সক্ষম।

Huawei Mate 20 Pro :

হুয়াওয়ে মেট ২০ প্রো তে আছে ৬.৩৯ ইঞ্চির অ্যামোলেড ডিসপ্লে,কর্নিং গোরিলা গ্লাসের সুরক্ষার সাথে। এর স্ক্রিনটির রেজোলিউশন ১৪৪০×৩১২০ পিক্সেল এবং আসপেক্ট রেশিও ১৯.৫:৯। এই ফোনটিতে আছে হাইসিলিকন কিরিন ৯৮০(৭ ন্যানোমিটার) প্রসেসর এবং মালি জি৭৬ জিপিইউ। ফোনটির অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ৯.০ পাই এবং ইউজার ইন্টারফেস EMUI ৯। ফোনটিতে রয়েছে ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ এবং আছে ৪২০০ এমএএইচ এর একটি ব্যাটারি।

ক্যামেরা: মেট ২০ প্রো তে রয়েছে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ। ক্যামেরাতে ব্যবহার করা হয়েছে লাইকা অপটিক্স। এই তিনটি ক্যামেরার প্রধানটি ৪০ মেগাপিক্সেলের f/১.৮ অ্যাপারচারের সাথে দ্বিতীয়টি ২০ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রাওয়াইড লেন্স এবং তৃতীয়টি ৮ মেগাপিক্সেলের টেলিফটো লেন্স। এই ক্যামেরাতে দেওয়া হয়েছে অপটিক্যাল জুম ,অপটিক্যাল ইমেজ স্টেবিলাইজেশন, ফেজ ডিটেক্ট অটো ফোকাস এবং লেজার অটো ফোকাস এর মতো ফিচার। রিয়ার ক্যামেরা দিয়ে আপনি ২১৬০ পিক্সেল অবধি ভিডিও রেকর্ডিং করতে পারবেন। এই ফোনটিতে সেলফির জন্য ২৪ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা দেওয়া রয়েছে f/২.০ অ্যাপারচারের সাথে যার সাহায্যে আপনি দুর্দান্ত লো-লাইট সেলফি তুলতে পারবেন। সেলফি ক্যামেরার সাহায্যে আপনি ১০৮০ পিক্সেল অবধি ভিডিও রেকর্ডিং করতে পারবেন।

Redmi Note 7 Pro :

এই ফোনে ৬.৩ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস LTPS ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে,যার আসপেক্ট রেশিও হলো ১৯.৫:৯ এবং স্ক্রিন রেজোলিউশন ১০৮০×২৩৪০ পিক্সেল।স্ক্রিনের সুরক্ষার জন্য কর্নিং গরিলা গ্লাস ৫ আছে। এই ফোন ২.০ গিগাহার্টজ স্ন্যাপড্রাগন ৬৭৫ অক্টা কোর প্রসেসরের সাথে লঞ্চ হয়েছে .ফোনটি ৪ জিবি ও ৬ জিবি র‍্যামের সাথে এসেছে।এছাড়াও ফোনে ৬৪ জিবি ও ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ রয়েছে।

ফটোগ্রাফির জন্য এই ফোনে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরার দেওয়া হয়েছে।যার প্রাথমিক ক্যামেরাটি Sony IMX586 সেন্সরের সাথে ৪৮ মেগাপিক্সেলের(এফ/১.৮ অ্যাপারচার) এবং দ্বিতীয়টি LED ফ্লাশের সাথে ৫ মেগাপিক্সেলের।আবার সেলফির জন্য ১৩ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা আছে। ফোনটিতে কুইক চার্জ প্রযুক্তি যুক্ত ৪০০০ এমএএইচ ব্যাটারি রয়েছে।

Samsung Galaxy Note 9 :

নোট ৯ এ কর্নিং গোরিলা গ্লাস ৫ এর সুরক্ষার সাথে রয়েছে ৬.৪ ইঞ্চি কিউ এইচ ডি প্লাস অ্যামোলেড ডিসপ্লে । স্ক্রিনটির রেজোলিউশন ২৯৬০×১৪৪০ পিক্সেল এবং আসপেক্ট রেশিও ১৮.৫:৯ । এটিতে আপনারা পাবেন দুটি র‌্যাম/ স্টোরেজ বিকল্পে যথা ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ এবং ৮ জিবি র‌্যাম ও ৫১২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ । ফোনটির অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ৮.১ ওরিও যা আপনারা অ্যান্ড্রয়েড ৯.০ পাই তে আপগ্রেড করতে পারেন। এই ফোনটিতে রয়েছে এক্সিনোস এর ৯৮১০ প্রসেসর এবং গেমিং এর জন্য রয়েছে মালি জি৭২ জিপিইউ। এছাড়াও এই ফোনটিতে রয়েছে একটি ৪০০০ এমএএইচ এর ব্যাটারি।

ক্যামেরা: নোট ৯ এ রয়েছে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ যার প্রধানটি ১২ মেগাপিক্সেলের f/১.৫ অ্যাপারচারের সাথে। এবং দ্বিতীয়টি একটি 12 মেগাপিক্সেলের টেলিফটো লেন্স যার অ্যাপারচার f/২.৪। লেন্সগুলিতে রয়েছে ফেজ ডিটেক্ট অটো ফোকাস, অপটিক্যাল এবং ইলেকট্রনিক ইমেজ স্টেবিলাইজেশন এবং অপটিক্যাল জুম। ব্যাক ক্যামেরার সাথে আপনি ২১৬০ পিক্সেল অবধি ভিডিও রেকর্ডিং করতে পারবেন। সামনে সেলফি জন্য আছে ৮ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা f/১.৭ অ্যাপারচারের সাথে। ফ্রন্ট ক্যামেরার সাথেও আপনি ১৪৪০ পিক্সেল অবধি ভিডিও রেকর্ডিং করতে পারবেন।

পড়ুন : শাওমির আপকামিং স্মার্টফোনগুলো দেখে নিন, শীঘ্রই হবে লঞ্চ