সেরা দশটি ফ্রি ভিপিএন-র নাম জেনে নিন

0
493

ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক বা সংক্ষেপে ভি পি এন এখন ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের কাছে ভীষণ দরকারি এবং প্রয়োজনীয় বস্তু । এখন সমস্ত ইন্টারনেট জুড়েই হ্যাকারদের রমরমা। ভি পি এন শুধুমাত্র ব্যবহারকারী কে বেনামি করে দেয় তা নয়। এর পাশাপাশি বেশ কিছু নিরাপত্তা ও প্রদান করে। একজন ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ভি পি এন ব্যবহার করে তার কম্পিউটার এর আই পি এড্রেস লুকোতে পারে ঠিকই। এছাড়াও ভি পি এন চালু থাকলে ইন্টারনেট ট্র্যাফিক কে সহজেই এনক্রিপ্ট করা যায়।

এখন বেশিরভাগ ভি পি এন সার্ভিস প্রদানকারী কোম্পানি প্রিমিয়াম প্ল্যান দেয় যা অনেক খরচসাপেক্ষ। তাই বেশির ভাগ ইউজার ই খোঁজে ফ্রি ভি পি এন সার্ভিস। এখানে যে কয়টি ভি পি এন সার্ভিস এর কথা বলা হবে সেগুলি এই বছরের সব থেকে ভালো ফ্রি ভি পি এন সার্ভিস ।

1. EXPRESS VPN- এটি একটি প্রিমিয়াম ভি পি এন এপ্লিকেশন । কিন্তু এটি ফ্রি তেও ব্যবহার করা যায়। সার্ভিস প্রোভাইডার প্রথমে ৩০ দিনের একটি ট্রায়াল পিরিয়ড দেয় যেখানে ইউজার সমস্ত প্রিমিয়াম ফিচার্স কন্টেন্ট ব্যবহার করতে পারে।এছাড়াও থাকে ৩০ দিনের মানি ব্যাক গ্যারান্টি অফার। এক্সপ্রেস ভি পি এন এর সব থেকে ভালো ব্যাপার হলো পুরো পৃথিবী জুড়ে এদের প্রায় কুড়ি হাজার এর মতো সার্ভার রয়েছে ১৪৮ টি জায়গায় তাই ইন্টারনেট স্পিড ও যথেষ্ট ভালো।

2. Hotspot Shield – হটস্পট শিল্ড হলো আরেকটি বিখ্যাত ভি পি এন সার্ভিস প্রদানকারী সংস্থা যা আমাদের কাছে পরিচিত এর দারুন গতিশীলতার জন্য। এর যে ফ্রি ভার্সন টি আছে সেখানে ইউজার প্রতিদিন ৫০০ এম বি ডাটা ব্যবহার করতে পারবে। প্রিমিয়াম বেসিক ও যথেষ্ট ভালো শুধু পছন্দের জায়গা বেছে নেওয়ার ক্ষেত্রে কিছু সীমাবদ্ধতা আছে। এছাড়াও ফ্রি ভার্সন এ আডস(ADS) রয়েছে।

3. WINDSCRIBE- উইন্ডস্ক্রাইব হলো অন্য একটি বিখ্যাত সংস্থা। এটি খুব অল্প সময়ের মধ্যে বিখ্যাত হয়ে গেছে। হটস্পট শিল্ড এর মতো এটিও ৫০০ এম বি ডেটা ব্যবহার করতে দেয়। এর সব থেকে ভালো দিক হলো এটি কোনো কানেকশন লগ, IP স্ট্যাম্প বা ব্রাউজিং হিস্টোরি জমা করে রাখে না।এছাড়াও এখানে একাউন্ট বানালে এক মাসের একটি ফ্রি ট্রায়াল পাওয়া যায়।

4. PROTON VPN – এই ভি পি এন তার পেড ও বিনামূল্যে পরিষেবার আকর্ষণীয় পরিকল্পনা গুলির জন্য দারুন জনপ্রিয় হয়েছে।এছাড়াও এর জনপ্রিয় হওয়ার আর একটি বড়ো কারণ হলো ব্যান্ডউইথ এর কোনো বাধানিষেধ নেই। যার অর্থ ব্যবহারকারী ফ্রি তে যথেচ্ছ ডেটা ব্যবহার করতে পারে।যদিও ফ্রি ভার্সন টি তে বেশ কিছু সীমাবদ্ধতা রয়েছে যেমন মাত্র একটি ডিভাইস কানেক্ট করা যায় এবং তিনটি লোকেশন অল্টারনেট করে ব্যবহার করা চলে।

5. HIDE.ME – হাইড ডট এমই একটি ফ্রি ভি পি এন সার্ভিস প্রোভাইডার।এই কোম্পানি প্রতি মাসে ২ জি বি ডেটা ব্যবহার এর জন্য দেয়। এখানে ডেটা লিমিট এর সাথে সাথে ডিভাইস কানেকশন ও লোকেশনেও ব্যবহারে সীমাবদ্ধতা আছে। ফ্রি ভার্সন টি তে শুধুমাত্র তিনটি সার্ভার লোকেশন বেছে নেওয়া যায়।এছাড়াও সাত দিনের একটি ফ্রি ট্রায়াল দেওয়া হয় ব্যবহারকারী কে।

6. TUNNEL BEAR – টানেল বিয়ার ও ভি পি এন সার্ভিস গুলির মধ্যে বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেছে।এর ইন্টারফেস ভীষণ সুন্দর দেখতে।এছাড়াও ২২ টা দেশের বেশি সার্ভার এর সাথে যুক্ত হওয়া যায় এবং এর ব্রাউজিং স্পিড ও নিরাপত্তা ও খুব ভালো । কিন্তু টানেল বিয়ার এর ফ্রি ভার্সন মাস প্রতি মাত্র ৫০০ এম বি ডেটা ব্যবহার করতে দেয়।

7. PRIVATE TUNNEL- প্রাইভেট টানেল এই ভি পি এন এপ টি সমস্ত রকম প্ল্যাটফর্ম যেমন ঐইন্ডোজ , এন্ড্রোয়েড,এই ও এস ও ম্যাক এ সহজলভ্য ।প্রাইভেট টানেল এর সেরকম কোনো ফ্রি সার্ভিস নেই। কিন্তু এটি প্রথম একমাস ব্যবহারকারী কে ফ্রি ট্রায়াল দেয়।

8. OPERA- হ্যাঁ নামটা দেখে হয়তো অনেকেই অবাক হবেন। কিন্তু অপেরা তাদের সর্বশেষ ভার্সন টিতে এড ব্লকার ও ভি পি এন সিস্টেম চালু করেছে।ব্রাউজার এর মধ্যেই ভি পি এন কাজ করে।যদি ইউজার ভি পি এন এর জন্য অন্য কোন থার্ড পার্টি এপ্লিকেশন ইনস্টল করতে না চায় তাহলে এটা খুব ভালো কাজ করবে।

9. OPEN VPN – ওপেন ভি পি এন হচ্চে সব থেকে পুরনো ভি পি এন সার্ভিস প্রোভাইডার গুলির মধ্যে অন্যতম। এর সবথেকে ভালো উপায়টি হলো এটি সম্পূর্ণ বিনামূল্যে পাওয়া যায় এবং এর বিস্তার অনেকটা।

10. FREELAN – ফ্রি ল্যান ফ্রি ভি পি এন হিসেবে দারুন সার্ভিস প্রভাইড করে। ফ্রি ল্যান এর কানেকশন রেঞ্জ অনেক বেশি এটি ব্যবহারকারী কে ক্লায়েন্ট সারভার ও পিয়ার টু পিয়ার কানেকশন দিতে পারে।

সব খবর পড়তে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন – এখানে ক্লিক করুন

পড়ুন : স্মার্টফোনকে হ্যাকারদের থেকে বাঁচাতে কি করবেন জেনে নিন