10000 টাকার মধ্যে সেরা মোবাইল ফোন দরকার ? দেখে নিন তালিকা

0
2890

সেসব দিন এখন অতীত যখন কোনো ভালো ফিচারের ফোন নেওয়ার জন্য বেশি দামি ফোন খোঁজ করতে হবে। স্মার্টফোন মার্কেটে বেড়ে চলা প্রতিযোগিতায় এখন শক্তিশালী প্রসেসর, ভালো ক্যামেরা, ফেস আনলক, ফিঙ্গারপ্রিন্ট এর মতো ফিচার বাজেট ফোনে পাওয়া যাচ্ছে। Xiaomi এই মুহূর্তে কম দামে সবচেয়ে ভালো পারফরম্যান্সের ফোন বাজারে আনছে। আবার শাওমিকে টক্কর দিতে রিয়েলমি, স্যামসাং এর মতো কোম্পানিরা দমদার বাজেট ফোন লঞ্চ করছে। আজ আমরা এই ধরণের কিছু বাজেট ফোনের কথা বলবো যেগুলোর দাম 10000 টাকার কম।

Xiaomi Redmi Note 7 : দাম শুরু হয়েছে 9,999 টাকা

আপনি যদি 10,000 টাকার মধ্যে সেরা ফোন খোঁজ করেন তবে Redmi Note 7 তালিকায় উপরে থাকবে। রেডমি নোট 7 ফোনে 6.3 ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস LTPS ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে,যার আসপেক্ট রেশিও হলো 19.5:9 এবং স্ক্রিন রেজোলিউশন 1080 × 2340 পিক্সেল।স্ক্রিনের সুরক্ষার জন্য কর্নিং গরিলা গ্লাস ও 2.5ডি কার্ভাড গ্লাস আছে। এই ফোন 2.2 গিগাহার্টজ স্ন্যাপড্রাগন 660 অক্টা কোর প্রসেসরের সাথে লঞ্চ হয়েছে।ফোনটি 3 জিবি ও 4 জিবি র‍্যামের সাথে এসেছে।এছাড়াও ফোনে 32 জিবি ও 64 জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ রয়েছে।

ফটোগ্রাফির জন্য এই ফোনে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরার দেওয়া হয়েছে।যার প্রাথমিক ক্যামেরাটি 12 মেগাপিক্সেলের (এফ/2.2 অ্যাপারচার) এবং দ্বিতীয়টি LED ফ্লাশের সাথে 2 মেগাপিক্সেলের। আবার সেলফির জন্য 13 মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা আছে। ফোনটিতে কুইক চার্জ প্রযুক্তি যুক্ত 4,000 এমএএইচ ব্যাটারি রয়েছে।

Realme 3 : দাম শুরু 8,999 টাকা থেকে

আপনি যদি শাওমি Redmi Note 7 বিকল্প হিসাবে কোনো ফোন খোঁজ করেন তবে Realme 3 কে বেছে নিতে পারেন। এই ফোনে গরিলা গ্লাসের সুরক্ষার সাথে 6.2 ইঞ্চি নচ ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে।প্রসেসর,র‌্যাম ও স্টোরেজের কথা বললে এতে আপনি পাবেন মিডিয়াটেক Helio P70 প্রসেসর, 3 ও 4 জিবি র‌্যাম এবং 32 ও 64 জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড পাইয়ের সাথে ColorOS 6.0 অপারেটিং সিস্টেমে চলে।

4230 এমএএইচ ব্যাটারির সাথে আসা এই ফোনে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। যার প্রথমটি 13 মেগাপিক্সেলের (f /1.8 অ্যাপারচার) এবং দ্বিতীয়টি 2 মেগাপিক্সেলের।রিয়ার ক্যামেরার সাথে 5 পি লেন্স,নাইটস্ক্যাপ,হাইব্রিড এচডিআর,ক্রোমা বুস্ট,পোর্ট্রেট মোড ইত্যাদি ফিচার আছে। আবার সেলফির জন্য দেওয়া হয়েছে 13 মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা।ফ্রন্ট ক্যামেরার সাথে এআই বেয়াউটিফিকেশন, এইচডিআর এবং এআই ফেসিয়াল আনলক-র মতো ফিচার ও আছে।

Samsung Galaxy M10 : দাম শুরু 7,990 টাকা থেকে

স্যামসাং এবার রেডমি ও রিয়েলমিকে দমাতে গালাক্সি M সিরিজ লঞ্চ করেছিল। এই সিরিজের সবচেয়ে কমদামি ফোন হলো Samsung Galaxy M10 । অ্যান্ড্রয়েড 8.1 ওরিওর সাথে আসা এই ফোনে ওয়াটারড্রপ নচ সহ 6.2 ইঞ্চি এইচডি প্লাস ইনফিনিটি ভি ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে।যার আসপেক্ট রেশিও হলো 19.5 : 9।ফোনটি 1.6 গিগাহার্টজ এক্সিনাস 7890 প্রসেসর ও 2/3 জিবি র‍্যাম এবং 16/32 জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজের সাথে লঞ্চ হয়েছে। মাইক্রো এস ডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ 512 জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

ফটোগ্রাফির জন্য এই ফোনে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা আছে। যার প্রাথমিক সেন্সরটি 13 মেগাপিক্সেলের এবং দ্বিতীয়টি আলট্রা ওয়াইড এঙ্গেল সহ 5 মেগাপিক্সেলের।এছাড়াও সেলফির জন্য আছে 5 মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। তবে এই ফোনে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর  দেওয়া হয়নি।স্যামসাং গ্যালাক্সি এম 10 3,400 এমএএইচ ব্যাটারির সাথে ভারতে লঞ্চ হয়েছে।

Nokia 3.1 Plus : আমাজনে দাম শুরু 8,990 টাকা থেকে

এইচএমডি গ্লোবাল এবার বাজেট রেঞ্জে নোকিয়া 6.1 প্লাস এবং 5.1 প্লাস এর পরে পরেই Nokia 3.1 Plus লঞ্চ করেছিল। এই ফোনে 2.5D গ্লাসের সাথে একটি 6 ইঞ্চি এইচডি + ডিসপ্লে আছে।ডিসপ্লের স্ক্রিন রেজল্যুশন 720×1440 পিক্সেল এবং আসপেক্ট রেশিও 18:9 । ফোনটি পিছনে মেটাল ফিনিশ ও ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরের সাথে লঞ্চ হয়েছে।প্রসেসর ও RAM এর কথা বললে,এতে মিডিয়াটেক হেলিও P22 চিপসেট ও 2 জিবি / 3জিবি RAM দেওয়া হয়েছে।এই ফোনে 16 জিবি /32 জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ বিকল্প থাকবে।মাইক্রোএসডি কার্ডের সাহায্যে এর ইন্টারনাল স্টোরেজ 400 জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।এটি অ্যান্ড্রয়েড ওয়ান ডিভাইস। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড 8.1 ওরিও অপারেটিং সিস্টেমে চলবে।

ফটোগ্রাফির জন্য এই ফোনে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা আছে।অ্যাপারচার f/2.0 ও PDAF লেন্স সহ এর প্রাইমারি সেন্সর 13 মেগাপিক্সেল এবং অ্যাপারচার f/2.4 ও ফোকাস লেন্স সহ সেকেন্ডারি সেন্সর 5 মেগাপিক্সেল।এছাড়াও অ্যাপারচার f/2.2 ও ফোকাস লেন্স সহ সেলফির জন্য 8 মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা রয়েছে। নোকিয়া 3.1 প্লাস 3500 mAh ব্যাটারির সাথে বাজারে এসেছে।

Xiaomi Redmi Y3 : দাম শুরু 9,999 টাকা থেকে

শাওমির এবছরের সেলফি সেন্ট্রিক স্মার্টফোন হলো Redmi Y3 । এই ফোনটি Redmi Y2 ফোনের আপগ্রেড ভার্সন। এই ফোনে 6.26 ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। এর ডিসপ্লের সুরক্ষার জন্য গোরিলা গ্লাস 5 প্রোটেকশন আছে। এই ফোনে পাবেন ওয়াটারড্রপ নচ ফিচার দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও ফোনটিতে TUV সার্টিফাইড ব্লু লাইট ফিল্টার প্রাপ্ত। অন্যান্য ফিচারের কথা বললে এতে আছে স্ন্যাপড্রাগন 625 প্রসেসর, 3 জিবি ও 4 জিবি র‌্যাম এবং 32 জিবি ও 64 জিবি স্টোরেজ। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ 512 জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

ক্যামেরার কথা বললে এই ফোনের পিছনে আছে 12 ও 2 মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা এবং সামনে আছে 32 মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। এছাড়াও এই ফোনে 10W ফাস্ট চার্জিং এর সাথে 4000 এমএএইচ ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে।

পড়ুন : 15 হাজার টাকার মধ্যে স্মার্টফোন খুঁজছেন ? দেখে নিন এ বছরের সেরা 5 মোবাইল ফোন

সব খবর পড়তে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন – এখানে ক্লিক করুন

টেক ভিডিও দেখার জন্য আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন – এখানে ক্লিক করুন

সব খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে যুক্ত হোন – এখানে ক্লিক করুন