ISRO তাদের পরবর্তী চন্দ্রযান 2 মুন মিশনের তারিখ কয়েকদিন আগেই জানিয়েছিল। যেহেতু এই লঞ্চ ভারতের জন্য একটি মাইলস্টোন, তাই ISRO এই লঞ্চ ইভেন্ট সরাসরি লোককে দেখানোর কথা ঘোষণা করেছে। Chandrayan-2 এর তিনটি মডিউল রয়েছে- অর্বাইটার,ল্যান্ডর ( বিক্রম) এবং রোভার (প্রজ্ঞান)। সম্পুর্ন স্পেসক্রাফটি স্পেসপোর্ট থেকে GSLV MK-III গাড়িতে করে শ্রীহরিকোটায় নিয়ে যাওয়া হবে এবং 15 জুলাই রাত 2.51 মিনিটে এটিকে লঞ্চ করা হবে। এই শ্রীহরিকোটা থেকে চন্দ্রযান 2 লঞ্চ সরাসরি দেখা যাবে।

ISRO সম্প্রতি একটি টুইট করেছে যেখানে রেজিস্ট্রেশনের বিষয়ে বলা হয়েছে। টুইট অনুযায়ী চন্দ্রযান 2 মুন মিশন দেখার জন্য রেজিস্ট্রেশন 4 জুলাই দুপুর 12 টা থেকে শুরু হবে। যদিও এখনো কোনো লিংক বা ওয়েবসাইট দেওয়া হয়নি। যদিও আশা করা যায় নির্ধারিত সময়ের আগে লিংক দেওয়া হবে।

ISRO কিছুদিন আগে শ্রীহরিকোটা, সতীশ ধাওয়ান স্পেস সেন্টারে ভিজিটার গ্যালারি বানানোর কথা ঘোষণা করেছিল। ইসরো চাইছে মানুষ এই ধরণের লঞ্চ দেখে উদ্বুদ্ধ হোক এবং গবেষণার কাজে নিজেকে নিয়োজিত করুক। জানা গেছে এই গ্যালারিতে একসঙ্গে 5000 জন ইভেন্ট দেখতে পাবে। এর আগে PSLV-C45 লঞ্চ হওয়ার সময় 1200 জন উপস্থিত ছিল।

10 বছর আগে Chndrayan-1 লঞ্চ করা হয়েছিল, তার থেকে অনেক আধুনিক ভাবে তৈরি করে হয়ে Chandrayan-2 কে। Chandryan-1 তে মোট 11টি পেলোড ছিল, তার মধ্যে 5টি ভারতের, 3টি ইউরোপের, 2টি আমেরিকার ও 1টি বুলগেরিয়ার, সেই চন্দ্রভিজানে গুরুত্বপূর্ণ সাফল্য ছিল চন্দ্রপৃষ্ঠে জলের অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া।

মহাকাশ গবেষণায় ভারতের পারদর্শীতা ও সাফল্য এখন সমগ্র বিশ্বে আলোচনার বিষয়, তাই এই মহাকাশ অভিযানের সাফল্য ভবিষ্যতে ভারতের বৈজ্ঞানিক গবেষণাকে আরো উদ্বুদ্ধ করবে আশা রাখা যায়।

পড়ুন : জীবনের খোঁজে শনি গ্রহে ড্রোন পাঠাচ্ছে নাসা

সব খবর পড়তে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন – এখানে ক্লিক করুন

টেক ভিডিও দেখার জন্য আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন – এখানে ক্লিক করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here