এই 21 টি প্রশ্নের জবাব না দিলে ব্যান হবে টিকটক

0
249

ভারতে বহুল জনপ্রিয় দুই সোশ্যাল মিডিয়া, টিকটক ও হেলো কে নোটিশ পাঠালো সরকার। মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী মোট 21 টি প্রশ্নের জবাব চাওয়া হয়েছে এই দুই অ্যাপের কাছ থেকে। যদি এই 21 টি প্রশ্নের যথাযথ উত্তর টিকটক না দিতে পারে তবে দ্বিতীয়বারের জন্য ভারতে ব্যান করা হতে পারে।

ইলেকট্রনিক্স অ্যান্ড টেকনোলজি মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এই নোটিশ রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘের সাথে যুক্ত স্বদেশী জগরান মঞ্চ (এসজেএম) এর অভিযোগের পর পাঠানো হয়েছে। মঞ্চের তরফ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে এই অ্যাপ দেশ বিদেশের তথ্য জড়ো করতেই ব্যবহার করা হচ্ছে। এর আগেও অনেক মন্ত্রী টিকটকের বিরুদ্ধে একই অভিযোগ করেছিল। আর এই অভিযোগের গুরুত্ব বুঝেই সরকার নোটিশ পাঠিয়েছে এই অ্যাপগুলোকে। যদিও 21 টি প্রশ্ন ঠিক কি কি করা হয়েছে তা জানা না গেলেও বিশেষ বিশেষ কয়েকটি প্রশ্ন আমরা জানতে পেরেছি। আসুন দেখে নেই সরকার টিকটকের কাছ থেকে কোন কোন বিশেষ বিষয় জানতে চেয়েছে।

তথ্য সুরক্ষা:

টিকটককে নিয়ে মানুষের বহুদিনের অভিযোগ এরা মানুষের ডেটা চীনকে সরবরাহ করছে। আর সেই কারণেই সরকার এই অ্যাপগুলোর কাছে জানতে চেয়েছে তথ্য সুরক্ষার জন্য তারা কি কি পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

ভুয়ো খবর:

টিকটকের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছে ভুয়ো খবর রোখার জন্য এখনো পর্যন্ত কি কি ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এর সাথে ভারতীয় আইনকে মানার জন্য কি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।

শিশু নিরাপত্তা:

এছাড়া, মন্ত্রণালয় শিশু সুরক্ষা লঙ্ঘনের বিষয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেছে কারণ এই প্ল্যাটফর্মগুলিতে 13 বছরের উপরে যেকোনো ব্যবহারকারী অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে পারে। যদিও ভারতে 14 সালের নিচে যে কাউকে অপ্রাপ্ত বয়স্ক বলে গণ্য করা হয়।

সরকারকে সহযোগিতার আশ্বাস:

এই দুই অ্যাপের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছে যেকোনো অভিযোগে তারা সরকারকে পূর্ণ সহযোগিতা করবে কিনা। যদিও টিকটক আগে ভাগেই জানিয়ে দিয়েছে প্লাটফর্মকে আরো উন্নত করতে তারা সরকারকে সহযোগিতা করতে প্রস্তুত।

পড়ুন :  একবার ফের প্রশ্নের মুখে টিকটকের ভবিষ্যৎ, প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি

প্রযুক্তির সাম্প্রতিক খবর আর রিভিউস জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা Whatsapp গ্রুপে যুক্ত হোন আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here