নতুন পদ্ধতিতে প্রতারিত বহু মানুষ, সতর্ক করলো রিজার্ভ ব্যাংক ও Paytm

0
1012

স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের জন্য পেটিএম একটি সতর্কবার্তা জারি করেছে। পেটিএমের তরফ থেকে জানানো হয়েছে ব্যবহারকারীরা যেন পেটিএমের কেওয়াইসি ফিলাপ করার সময় সতর্ক থাকেন। একটি নোটিফিকেশন জারি করে পেটিএম তাদের ব্যবহারকারীদের কেওয়াইসির সময়ে এনিডেস্ক অথবা কুইক সাপোর্ট এর মত অ্যাপ ডাউনলোড না করার অনুরোধ করেছে। এই ধরনের অ্যাপগুলির মাধ্যমে জালিয়াতরা তাদের অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা চুরি করতে পারে।

ব্যাংকের তরফ থেকেও একই সতর্কতা জারি করা হয়েছে-

বিগত কিছুদিন ধরেই রিমোট অ্যাপ যেমন এনিডেস্ক, টিমভিউয়ার এর মত অ্যাপের মাধ্যমে জালিয়াতির বেশ কয়েকটি ঘটনা সামনে আসে । এ বছরের শুরুতেই রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া তাদের গ্রাহকদের এই ধরনের অ্যাপ থেকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছিল। শুধুমাত্র তাই নয় দেশের কিছু প্রাইভেট সেক্টর ব্যাংক যেমন এইচডিএফসি আইসিআইসিআই এবং অ্যাক্সিস ব্যাঙ্ক তাদের গ্রাহকদের এ ধরনের অ্যাপগুলি ইনস্টল না করার পরামর্শ দিয়েছে।

আইটি প্রফেশনালদের জন্য অ্যাপগুলি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ-

এই অ্যাপগুলি কোন ধরনের মালওয়্যার নয় অথবা এরা গ্রাহকদের তথ্য লিকও করে না। বরং অ্যাপগুলি আইটি প্রফেশনালদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অ্যাপ। এই ধরনের অ্যাপগুলির মাধ্যমে তারা বহু দূরে থাকা অন্য যেকোনো কম্পিউটারকে অপারেট করতে পারে। সহজ ভাবে বলতে গেলে এই ধরনের অ্যাপগুলিকে স্ক্রিন শেয়ারিং অ্যাপও বলে।

জালিয়াতরা অ্যাপটিকে খারাপ ভাবে ব্যবহার করছে-

এই অ্যাপগুলির মাধ্যমে জালিয়াতরা নিজেদের কার্যসিদ্ধি করার চেষ্টাও করছে। তারা সাধারণ মানুষকে ব্যাঙ্কের কর্মী হিসেবে ফোন করে তাদের কাছ থেকে তাদের ব্যাংকের একটি সমস্যার কথা বলে। আবার তাদের এমনও হুমকি দেওয়া যে তাদের বলা স্টেপ ফলো না করলে ওদের নেট ব্যাংকিং-এর সুবিধাও বন্ধ করে দেওয়া হবে। এরপর তাদেরকে দিয়ে ওই অ্যাপটি ইনস্টল করতে বাধ্য করা হয়। তারপর সাধারণ মানুষেরা জালিয়াতদের পাতা ফাঁদে পা দিয়ে দেন এবং অনেক সময় নিজের সর্বস্ব হারিয়ে বসেন।

আপনাদেরকে অ্যাপটি ইনস্টল করতে বাধ্য করে তারা-

বিভিন্নভাবে ভয় দেখানোর পর আপনাদেরকে জালিয়াতরা ওই অ্যাপটি ইনস্টল করার জন্য বাধ্য করবে( এনি ডেস্ক অথবা টিমভিউয়ার )। তারপর তারা আপনার ফোনে ভেরিফিকেশনের জন্য আসা নয় অঙ্কের কোডটি চাইবে। কোডটি আপনি যখনই তাদের কাছে দিয়ে দেবেন তখনই আপনার ফোনের স্ক্রিনের সম্পূর্ণ অ্যাক্সেস তাদের কাছে চলে আসবে। এরপর আপনি আপনার স্ক্রিনে যাই করবেন তাদের কাছে সেটা পৌঁছে যাবে।

তারা আপনার ব্যাংক ডিটেলস চুরি করতে পারে-

এটি ইন্সটল হয়ে যাবার পরে জালিয়াতরা খুব সহজেই আপনার ব্যাংক ডিটেইলস দেখে নিতে পারে। আপনি যখনই পেটিএম ইউপিআই অথবা যে কোন পোর্টালের মাধ্যমে টাকা পেমেন্ট করতে যাবেন তখনই আপনার ব্যাংক ডিটেইলস এবং লগ ইন ডিটেইলস সম্পূর্ণভাবে তারা দেখে নিতে পারবে।
এমতাবস্থায়, আপনার করণীয় শুধু একটাই যখন আপনাকে কোন ব্যাঙ্কের কর্মী অথবা যে কোনো অপরিচিত লোক ডেক্সটপ স্ক্রিন শেয়ারিং অ্যাপ ইন্সটল করার কথা বলবে আপনি ততক্ষণ সেটিকে ইন্সটল করবেন না যতক্ষণ না আপনারা সেই অ্যাপটির কাজ করার ধরন সঠিকভাবে না বুঝে ফেলেন। এবং এ কথাটা অবশ্যই মনে রাখবেন যে কখনো কোন ব্যাঙ্কের কর্মী আপনাকে ফোন করে এই ধরনের কোন অ্যাপ ইন্সটল করার কথা বলবে না।

পড়ুন : SBI গ্রাহকরা এই নতুন পদ্ধতিতে হচ্ছে সর্বস্বান্ত, সতর্ক করলো ব্যাংক

সব খবর পড়তে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন – এখানে ক্লিক করুন

টেক ভিডিও দেখার জন্য আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন – এখানে ক্লিক করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here