তামিলনাড়ুর কুন্দনকুলামের নিউক্লিয়ার প্ল্যান্টে সাইবার হ্যাকের পরে ভারতের সাইবার সুরক্ষা ব্যবস্থা এখন বড় প্রশ্নচিহ্নের মুখে। সাইবার হ্যাকাররা এখন বিভিন্ন ধরনের পন্থা অবলম্বন করে সাধারণ মানুষের ব্যাংক থেকে টাকা চুরি করার চেষ্টায় রয়েছে। এরমধ্যে পেগাসাসের মতো সফটওয়্যার থেকে শুরু করে কিবোর্ড ক্যামেরার মাধ্যমে এটিএম হ্যাক করা অবধি রয়েছে। এই ধরনের হ্যাকিং এর সবথেকে বড় সমস্যা হলো ডিজিটাল ট্রানজেকশনের সঙ্গে ভারতের প্রত্যেক জনগণ অবগত নন। আর এই কারণেই ভারতীয় বহু মানুষ এরকম কসমস ফ্রডের জালে পা দিয়ে বসছেন। বহু বিশেষজ্ঞের মতে এখন ভারত সরকারকে অগ্রসর হতে হবে এই সাইবার জালিয়াতি বন্ধ করার জন্য। তাদের বিভিন্ন সাইবার সিকিউরিটি ফার্মের সঙ্গে যুক্ত হয়ে সাধারণ মানুষকে সাইবার ট্রানজেকশনের সঙ্গে পরিচিত করতে হবে। এই পদক্ষেপ গ্রহণ করা না হলে ভারতের সাইবার জালিয়াতি কখনোই বন্ধ করা সম্ভব হবে না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here