ভারতীয় টেলিকম মার্কেটে ২০১৬ সাল থেকে রিলায়েন্স জিওর বড় প্রতিদ্বন্দ্বী হিসাবে উঠে এসেছে এয়ারটেল ও ভোডাফোন। এই তিন কোম্পানি সবসময় একে অন্যকে ছাপিয়ে যাওয়ার চেষ্টায় আছে। যদিও এতদিন জিওর মতো সুবিধা এয়ারটেল বা ভোডাফোন কেউই দিতে পারতো না । তবে আইইউসি চার্জ লাগু করার পর জিওর সমস্ত প্ল্যানের দাম অনেক বেড়ে যাওয়ায় এয়ারটেল বা ভোডাফোন এখন বেশ কয়েকটি প্ল্যানে বেশি সুবিধা দিচ্ছে। আজ আমরা জেনে নেবো জিওর ১৪৯ টাকা নাকি ভোডাফোন, এয়ারটেলের ১৬৯ টাকায় বেশি সুবিধা পাওয়া যাচ্ছে।
রিলায়েন্স জিও ১৪৯ টাকার প্ল্যান :
১৪৯ টাকায় জিও এখন ২৪ দিনের ভ্যালিডিটি অফার করছে। এছাড়াও গ্রাহকরা পাবে জিও থেকে জিও আনলিমিটেড এবং জিও থেকে অন্য নেটওয়ার্কে ৩০০ মিনিট কলের সুবিধা। আবার এখানে রোজ ১.৫ জিবি ডেটা ও ১০০ টি এসএমএস পাওয়া যাবে।
ভোডাফোন ও এয়ারটেলের ১৬৯ টাকার প্ল্যান :
এই প্ল্যানে গ্রাহকরা প্রতিদিন ১ জিবি ডেটা পাবে। এই প্ল্যানের বৈধতা ২৮ দিন। তবে এই প্ল্যানের বিশেষত্ব হলো জিওর মতো এখানে কলের জন্য কোনো পরিসীমা নেই। অর্থাৎ গ্রাহকরা সমস্ত নেটওয়ার্কে আনলিমিটেড কলের সুবিধা পাবে। এছাড়াও রোজ মিলবে ১০০ টি এসএমএস।
আমাদের রায় : 
আমরা দেখলাম জিও ২০ টাকা কমে কেবল ৫০০ এমবি ডেটা রোজ বেশি দিচ্ছে। তবে এর ভ্যালিডিটি অন্যদের থেকে কম। এদিকে এয়ারটেল ও ভোডাফোন আনলিমিটেড কলের সুবিধা দিচ্ছে। সেদিক থেকে বলতে গেলে আপনি যদি বেশি মাত্রায় কল করেন তাহলে ভোডাফোন ও এয়ারটেল এগিয়ে থাকবে। তবে জিও অনেক বেশি ডেটা অফার করছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here