ডিজিটাল রেশন কার্ডকে নিয়ে নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে রাজ্য সরকার। কেবল অফলাইনে এই কাজকে সীমাবদ্ধ না রেখে অনলাইনেও পুরো প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে চাইছে খাদ্য দপ্তর। এতদিন অফলাইনে ডিজিটাল রেশন কার্ডের যাবতীয় কাজ হতো। যেখানে অনেকের নামের বানান ভুল বা বাবার নাম ভুল প্রভৃতি সমস্যা দেখা দিয়েছে। তবে এবার থেকে ডিজিটাল রেশন কার্ড সংক্ৰান্ত যাবতীয় কাজ ঘরে বসেই করে নেওয়া যেতে পারে।
প্রসঙ্গত কিছুদিন আগেই খাদ্য দফতর থেকে ঘোষণা করা হয়েছিল, যে সমস্ত ব্যক্তি ভর্তুকি চান না তারা ৫ নভেম্বর থেকে অনলাইনে ডিজিটাল রেশন কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারেন। এই কাজের জন্য wbpds.gov.in ওয়েবসাইটে গিয়ে ১০ নম্বর ফর্ম ভরতে হবে। আগামী ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত ভর্তুকিহীন গ্রাহকরা অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন। এই ঘোষণার পরই রাজ্যবাসীর সাড়া দেখে চমকে যান আধিকারিকরা। গত ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত প্রায় দেড় লক্ষ সচ্ছল গ্রাহকের আবেদন গৃহীত হয়েছে বলে জানিয়েছে খাদ্য দপ্তর।
এরপরেই তারা সিদ্ধান্ত নেয় অস্বচ্ছল গ্রাহকদেরও অনলাইনে ফর্ম ফিল আপের সুযোগ দেওয়া হবে। সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে তড়িঘড়ি এই ব্যবস্থা চালু করতে পারে খাদ্য দপ্তর। যার পর থেকে সমস্ত শ্রেণীর মানুষ ঘরে বসেই ডিজিটাল রেশন কার্ডের যাবতীয় কাজ কর্ম করে ফেলতে পারবে। কাজের ভিত্তিতে গ্রাহকদের বিভিন্ন নম্বরের ফর্ম পূরণ করতে হবে।
১ . অস্বচ্ছল গ্রাহকরা রেশন সুবিধা নেওয়ার জন্য ৩ নম্বর ফর্ম পূরণ করবেন।
২ . পরিবারের কারোর নাম তুলতে ৪ নম্বর ফর্ম পূরণ করবেন।
৩ . ১৩ টাকার পরিবর্তে ২ টাকায় চাল পেতে ৮ নম্বর ফর্ম পূরণ করবেন।
তবে মনে রাখবেন অনলাইনে ফর্ম ফিল আপ করার পর খাদ্য দপ্তরের আধিকারিকরা আপনার বাড়িতে এসে সমস্ত তথ্য সঠিক কিনা যাচাই করবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here