আইইউসি চার্জ কে কেন্দ্র করে গতমাস থেকেই চর্চার বিষয় ছিল টেলিকম সেক্টর। তবে সে চর্চা বন্ধ না হতে হতেই ট্যারিফের মূল্য বাড়ানো নিয়ে ফের ফের শিরোনামে ভোডফোন আইডিয়া, এয়ারটেল, জিও। তবে এবার শুধু এই তিনটি কোম্পানি নয়, সরকারি টেলিকম কোম্পানি বিএসএনএল ও ট্যারিফের মূল্য বাড়াবে বলে জানিয়েছে। কোম্পানির তরফে ঘোষণা করা হয়েছে অন্যান্য কোম্পানির মতো আগামী ডিসেম্বর মাস থেকে তাদের ও প্ল্যানের মূল্য বাড়বে। অর্থাৎ আপনি যদি বিএসএনএল গ্রাহক হোন এবং এতদিন সস্তায় ডেটা থেকে কল করতে পারছিলেন, তাহলে সে দিন শেষ হতে চলেছে।
যদিও BSNL এর প্ল্যানের মূল্য আগের তুলনায় কত শতাংশ বাড়বে তা জানা যায়নি। এদিকে ভোডাফোন আইডিয়া ও এয়ারটেল ৩০ শতাংশ ট্যারিফ মূল্য বাড়াতে পারে বলে ET Telecom এর রিপোর্টে বলা হয়েছে। রিপোর্টে এও বলা হয়েছে যে, কোম্পানিগুলো কোনো মতেই আর লোকসানে ব্যবসা করতে রাজি নয়। সেকারণে গ্রাহক পিছু গড় আয় বাড়াতে প্ল্যানের মূল্য সর্বোচ্চ যত পরিমান বাড়ানো যায় তার চেষ্টা করা হবে।
আপনাকে জানিয়ে রাখি সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে টেলিকম কোম্পানিগুলোকে AGR ফী বাবদ ৯২,০০০ কোটি টাকা দিতে হবে সরকারকে। এমনিতেই বাজারে টিকে থাকার জন্য সস্তায় প্ল্যান আনা এবং তারপর সুপ্রিম কোর্টের এই নির্দেশ টেলিকম কোম্পানিগুলোর উপর ভারী আর্থিক বোঝা চেপে যাচ্ছিলো। এই কারণেই তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্ল্যানের দাম বাড়ানোর।
টেলিকম সেক্টরকে পুনরুদ্ধারের উদ্যোগ : 
দিনের পর দিন টেলিকম কোম্পানিগুলোর লোকসান বাড়ায় ভারতীয় টেলিকম সেক্টর অন্ধকারে ডুবে যাচ্ছিলো। গুঞ্জন ছড়িয়েছিলো ভোডাফোন ভারতে ব্যবসা বন্ধ করতে পারে। এরপরে সরকারের তরফে ট্রাই কে জানানো হয়েছিল কোম্পানিগুলোকে লাভের মুখ দেখাতে আনলিমিটেড কল ও ডেটা পরিষেবা বন্ধ করতে। যার পরেই ভোডাফোন, এয়ারটেল এই সিদ্ধান্ত নেয়। এদিকে জিও আইইউসি চার্জ চালু করায় এমনিতেই তাদের ট্যারিফের মূল্য ১৫ শতাংশ বেড়েছে। ফলে জিও আর বেশি মূল্য বাড়াবে না বলেই মনে হয়। তবে ভোডাফোন ও এয়ারটেল ট্যারিফ মূল্য ৩০ শতাংশ দাম বাড়াতে পারে বলে খবর।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here