শাওমির জনপ্রিয় ফোন Redmi Note 7S এর সাথেও এবার আগুন ধরার ঘটনা ঘটলো । মুম্বাইয়ে বাসিন্দা ঈশ্বর চৌহান তার রেডমি নোট ৭এস ফোনের আগুন ধরার ছবি টুইট করছেন। যদিও শাওমির তরফে এই অভিযোগকে সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন বলা হয়েছে। এদিকে ঈশ্বর চৌহান জানিয়েছেন, ফোনটি তৈরির সময় কোনো সমস্যা ছিল। তবে শাওমি সে অভিযোগ উড়িয়ে দাবী করেছে, গ্রাহকের ইচ্ছাতেই ফোনে আগুন ধরেছে।
টাইমস অফ ইন্ডিয়া’র রিপোর্ট অনুযায়ী, ঈশ্বর চৌহান গত অক্টোবর মাসে ফ্লিপকার্ট থেকে Redmi Note 7S ফোনটি কেনে। সে জানিয়েছে, ফোনটি ভালোই চলছিল কিন্তু হঠাৎ ই ফোনে আগুন ধরে যায়। যদিও সে কখনও ফোনটিকে অন্য চার্জার দিয়ে চার্জ করেনি বা হাত থেকে ফোনটি পড়েও যায়নি। এরপর সে অভিযোগ করে ফোনটি তৈরিতে কোন ত্রুটি থাকবে।
চৌহান আরও জানায়, তার ফোনে আগুন ধরার পরে সে থানের একটি অথোরাইজড সেন্টারে যায় এবং তারা জানায় ব্যাটারিতে সমস্যা ছিল। এরপরেই সে সমগ্র ঘটনা বর্ণনা করে টুইট করে এবং শাওমির এই ব্যবহারে যে অসন্তুষ্ট তা পরিষ্কার করে। এই ঘটনাটি ঠিক সেইসময় ঘটলো যখন শাওমি তাদের প্রোডাক্টের মান বর্ণনা করে গত সপ্তাহে ‘Quality with Mi’ এর ঘোষণা করেছিল।
এই ট্যাগে শাওমি জানিয়েছিল প্রোডাক্টের কোয়ালিটির সাথে তারা কোন সমঝোতা করবেনা। গত পাঁচ বছর ধরে শাওমি এত গ্রাহক পেয়েছে তার অন্যতম কারণ প্রডাক্টের গুণগত মান। তারা সমস্ত শাওমি ফ্যানকে ধন্যবাদ জানিয়ে জানিয়েছে, তারা পাশে আছে বলেই শাওমি উন্নত প্রোডাক্ট লঞ্চ করতে পারছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here