টেলিকম সংস্থা ভোডাফোন আইডিয়া ইতিমধ্যেই ঘোষণা করেছে আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে তাদের ট্যারিফ মূল্য আগের তুলনায় বাড়বে। মূলত দীর্ঘ সময় ধরে সংস্থা লোকসানে চলার পর সংস্থা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। রিপোর্ট অনুযায়ী, শুধু তৃতীয় কোয়ার্টারে কোম্পানির ক্ষতির পরিমান ৫০ কোটি টাকার ও বেশি। এই ক্ষতি ভারতে যেকোনো কর্পোরেট সংস্থাদের মধ্যে সর্বোচ্চ। আর সেকারণেই ট্যারিফ বাড়িয়ে সংস্থাটি চাইছে গ্রাহক পিছু গড় আয় বাড়াতে।
ট্যারিফ মূল্য বাড়ার অর্থ গ্রাহকদের এখন থেকে আগের তুলনায় বেশি মূল্যের রিচার্জ করতে হবে। জানা গেছে ভোডাফোন আইডিয়া তাদের প্ল্যানের মূল্য ৩০ শতাংশের বেশি বাড়াতে পারে। তবে আজ আমরা এই সংস্থার বেশ কয়েকটি প্ল্যানের বিষয়ে বলবো যেগুলো রিচার্জ করলে আপনি ট্যারিফ এর মূল্য বাড়লেও অনেকদিন পুরানো নিয়মে কল ও ডেটার সুবিধা পাবেন।
৯০ দিন পর্যন্ত ভ্যালিডিটির প্ল্যান :
ট্যারিফ বাড়ার পর ও পুরানো দামেই সমস্ত পরিষেবা পাওয়ার জন্য ৩৯৯ টাকার প্ল্যানটি রিচার্জ করতে পারেন। ৮৪ দিনের ভ্যালিডিটি সহ আসা এই প্ল্যানে রোজ ১ জিবি ইন্টারনেট দেওয়া হয়। এর সাথে আনলিমিটেড লোকাল ও এসটিডি কল ও রোজ ১০০ এসএমএস পাওয়া যায়। এই রকম আরেকটি প্ল্যান হলো ৪৫৮ টাকার প্ল্যান। এখানেও ৮৪ দিনের ভ্যালিডিটি পাওয়া যায়। তবে ডেটার পরিমান বাড়িয়ে এখানে রোজ ১.৫ জিবি করা হয়েছে।
এবার আপনি যদি আরো বেশিদিন ভ্যালিডিটি সহ কোনো প্ল্যান চান তাহলে ৫০৯ টাকার প্ল্যান রিচার্জ করতে পারেন। যেখানে ৯০ দিনের ভ্যালিডিটি এবং আনলিমিটেড কল পরিষেবা ও রোজ ১.৫ জিবি ইন্টারনেট দেওয়া হয়। এরপরেই আছে ৫১১ টাকার প্ল্যান, এই প্ল্যানের ভ্যালিডিটি ও ৯০ দিন। আগের প্ল্যান থেক্যে এর পার্থক্য এখানে রোজ ২ জিবি ডেটা দেওয়া হয়।
১০০ দিনের বেশি ভ্যালিডিটিযুক্ত প্ল্যান :
আপনি যদি ৯০ দিনের ভ্যালিডিটি প্ল্যানকে কম মনে করেন তবে আপনার জন্য সবার প্রথম যে প্ল্যানের কথা বলবো তা হলো ৫৯৯ টাকার প্ল্যান। এখানে ১৮০ দিনের ভ্যালিডিটি সহ মোট ৬ জিবি ডেটা অফার করা হয়। এখানে আনলিমিটেড কলিং পরিষেবাও পাওয়া যাবে। আবার একবছরের জন্য ভ্যালিডিটি সহ ৯৯৯ ও ১৬৯৯ টাকার দুটি প্ল্যান আছে। ৯৯৯ টাকায় মোট ১২ জিবি ইন্টারনেট সহ আনলিমিটেড কলের পরিষেবা দেওয়া হয় কিন্তু ১৬৯৯ টাকায় রোজ ১.৫ জিবি ইন্টারনেট সহ আনলিমিটেড কল পাওয়া যাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here