গত ২০ নভেম্বর ভারতে লঞ্চ হয়েছিল রিয়েলমির প্রথম ফ্ল্যাগশিপ ফোন Realme X2 Pro। এই ফোনটি আজ প্রথমবারের জন্য ভারতে ফ্ল্যাশ সেলের মাধ্যমে কেনা যাবে। এরআগে গ্রাহকরা রিয়েলমি এক্স২ প্রো প্রি-অর্ডার করতে পারছিলো। কিন্তু আজ দুপুর ১২ টায় ফ্লিপকার্টে এই ফোনটির ফ্ল্যাশ সেল অনুষ্ঠিত হবে। লঞ্চ অফার হিসাবে Realme X2 Pro এর সাথে একাধিক অফার দিয়েছে কোম্পানি। এই ফোনের বিশেষ বিশেষ ফিচারের কথা বললে এতে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫ প্রসেসর, কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা, ৪০০০ এমএএইচ ব্যাটারি এবং ৬৪ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে।

Realme X2 Pro দাম ও অফার :

আগেই বলেছি ভারতে রিয়েলমি এক্স২ প্রো এর প্রাথমিক দাম ২৯,৯৯৯ টাকা। এই দাম ফোনটির ৮ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজের। আবার ফোনটির ১২ জিবি র‍্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ৩৩,৯৯৯ টাকা।  লঞ্চ অফার হিসাবে এই ফোনের সাথে ৬ মাসের নো কস্ট ইএমআই অফার দেওয়া হবে। এছাড়াও জিও গ্রাহকরা ১১,৫০০ টাকার বেনিফিট পাবে। এছাড়াও প্রথম সেলে এই ফোনের সাথে ১,৭৯৯ টাকার রিয়েলমি বাডস ওয়্যারলেস বিনামূল্যে দেওয়া হবে।
Realme X2 Pro স্পেসিফিকেশন ও ফিচার :
অ্যান্ড্রয়েড ৯ পাই বেসড ColorOS ৬.১ অপারেটিং সিস্টেমের সাথে আসা রিয়েলমি এক্স২ প্রো ফোনে ৬.৫ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস সুপার AMOLED ফ্লুইড ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। যার আসপেক্ট রেশিও ৯০:৯ এবং স্ক্রিন রেজুলেশন ১০৮০ x ২৪০০ পিক্সেল। কর্নিং গরিলা গ্লাস ৫ প্রটেকশনের সাথে এই ডিসপ্লের স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৯১.৭ শতাংশ। সিকিউরিটির জন্য এই ফোনে ইন ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর আছে। এছাড়াও পাবেন স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫+ প্রসেসর, ২৫৬ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ এবং ১২ জিবি পর্যন্ত LPDDR4X র‍্যাম।
ফটোগ্রাফির জন্য এই ফোনের পিছনে চারটি ক্যামেরা আছে। যার প্রাইমারি ক্যামেরা ৬৪ মেগাপিক্সেল। এই ক্যামেরায় Samsung GW1 sensor ব্যবহার করা হয়েছে, যার অ্যাপারচার এফ/১.৮। এছাড়াও এই ফোনের অন্যান্য ক্যামেরাগুলি হলো, এফ/২.৫ অ্যাপারচার সহ ১৬ মেগাপিক্সেল টেলিফোটো লেন্স, ১১৫ ডিগ্রী ওয়াইড এঙ্গেল লেন্সের সাথে ৮ মেগাপিক্সেল টারশিয়ারি সেন্সর এবং ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর। সেলফির জন্য এই ফোনে এফ/২.৫ অ্যাপারচার সহ ১৬ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা আছে। এই ফ্রন্ট ক্যামেরায় Sony IMX471 ইমেজ সেন্সর দেওয়া হয়েছে।
এই ফোনের আরেকটি বিশেষ দিক হলো এর ব্যাটারি। রিয়েলমি এক্স২ প্রো ফোনে আপনি পাবেন ৫০ওয়াট সুপারভুক ফ্লাশ চার্জার সাপোর্টের সাথে ৪,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি। এই চার্জার ৩৫ মিনিটে ফোনকে ফুল চার্জ করে দেবে। কানেক্টিভিটির কথা বললে এই ফোনে পাবেন ৪জি এলটিই, ওয়াই-ফাই ৮০২.১১ এসি, ব্লুটুথ ভার্সন ৫.০, জিপিএস / এ-জিপিএস, এনএফসি, ইউএসবি টাইপ-সি, এবং ৩.৫ মিমি হেডফোন জ্যাক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here