স্মার্টফোন ব্লাস্ট করে মানুষের মৃত্যুর খবর আমরা প্রায়শই শুনে থাকি। তবে এবার ল্যাপটপের কারণে জীবন চলে যেতে বসেছিল এক দিল্লি যুবকের। গত মঙ্গলবার, ২৬ বছর বয়সী রাহুল সিং এর ঘুম ভাঙে প্রচন্ড গরমে। কিছু বুঝে ওঠার আগেই সে দেখে তার বিছানা দাউ দাউ করে জ্বলছে। প্রতিদিনের মত গত রাতেও সে বিছানায় তার ল্যাপটপটি রেখে ঘুমিয়ে ছিল । আগুন দেখেই সে তার রাজ নগরের সাত তলার ফ্ল্যাট ছেড়ে একটি জানলা থেকে বেরিয়ে এসে বাথরুমে আশ্রয় নেয় । এরপর একটি বিমের উপর লাফ দিয়ে পড়ে ফায়ার এলার্মের সুইচ চাপে। এরপর দমকল বাহিনীর এসে তাকে সুরক্ষিত ভাবে ফ্ল্যাটে ফিরিয়ে আনে।
হিন্দুস্থান টাইমস এর একটি রিপোর্ট অনুযায়ী, রাহুল নয়ডার একটি মাল্টিন্যাশনাল নেটওয়ার্কিং এবং টেলিকমিউনিকেশন কোম্পানির ইঞ্জিনিয়ার হিসাবে নিযুক্ত। রাহুল জানিয়েছে মঙ্গলবার নাইট শিফট থেকে সে কিছুটা আগেভাগেই বাড়ি ফেরে। এরপর কিছুক্ষন ল্যাপটপে কাজ করে সে ল্যাপটপটিকে স্লিপ মুডে রেখে অন্য বেডে ঘুমিয়ে পড়ে ।
এর ঠিক এক ঘন্টা বাদ, সকাল ৮.৩০ মিনিট নাগাদ সে প্রচন্ড গরম অনুভব করে এবং চোখ খুলে দেখে সারা ঘর ধোঁয়ায় ভরে গেছে। সে বুঝতে পারে তার ল্যাপটপ থেকে আগুন ছড়িয়েছে, যদিও ওই মুহূর্তে সে ভালো ভাবে কিছু দেখতে পারছিল না। এরপর সে ভালো ভাবে শ্বাস নেওয়ার জন্য বাথরুমে ঢোকে ।
সে আরো জানিয়েছে যে, তার স্ত্রী সকালে বাইরে থেকে ফ্ল্যাট লক করে কাজে চলে গিয়েছিল। এরপর ঘুম ভেঙে সে চারিদিকে এতো ধোঁয়া দেখে হতভম্ব হয়ে যায় এবং মেন গেটের কথা ভুলে গিয়ে বাথরুমে আশ্রয় নেয় ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here