ভবিষ্যতে শিক্ষার্থীরা অসুস্থ হলে তার পরিবর্তে ক্লাসে রোবট পাঠিয়ে পড়াশুনা করতে পারবে। জাপানি বিজ্ঞানীরা এ নিয়ে কাজ করছেন। তাদের মতে, “রোবট কে শিক্ষার্থীর পরিবর্তে ক্লাসে পাঠানো যেতে পারে। শিক্ষার্থীরা হাসপাতাল বা বাড়ি থেকে একটি ট্যাবলেটের সাহায্যে এটি নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম হবে। রোবট ক্যামেরার মাধ্যমে ক্লাসরুমে বর্ণিত জিনিসগুলি ছাত্রের সাথে লাইভ শেয়ার করবে। তারা নোট এবং লেকচার বুঝতে সক্ষম হবে। ” বর্তমানে একে একটি পাইলট প্রকল্প হিসাবে শুরু করা হয়েছে। পরীক্ষাটি সফল হলে একে সারা দেশে প্রয়োগ করা হবে।
পাইলট প্রকল্পটির শুরু টোকিও সীমান্তে অবস্থিত টোমোব হিগাসি বিশেষ সহায়তা স্কুল থেকে করা হচ্ছে। রোবোটটির নাম অরি। শিক্ষার্থীর অনুপস্থিতিতে অরি কে ডেস্কে রাখা হবে। এর দুটি হাত রয়েছে। কপালে একটি ক্যামেরা রয়েছে, যা ক্লাসের মধ্যে ঘটা ঘটনাগুলোকে স্টুডেন্টকে লাইভ দেখাবে । এটিকে একটি ট্যাবলেট সাহায্যে নিয়ন্ত্রণ করা হয়।
এতে স্পিকার দেওয়া হয়েছে, যার সাহায্যে শিক্ষার্থী বাড়ি থেকে যা কিছু বলবে, সেটিকে ক্লাসে রোবট অডিও হিসাবে প্রকাশ করবে। বাড়িতে বসেই রোবটির বিভিন্ন অংশ ভাঁজ করা যায়। ক্লাসে শিক্ষকের আলাপের ভিত্তিতে রোবটটি আবেগ ও প্রকাশ করতে পারে। এটি যখন কিছু পছন্দ করে তখন হাত তালি দেয়। এমন কি হাতের ইশারা এবং হাই-হ্যালো ও বলতে পারে ।
১১-বছর-বয়সী শিক্ষার্থী Asahi এর মতে, একে ব্যবহার করা এবং বিভিন্ন দিকে ঘোরানো দারুন মজাদার। Asahi হাসপাতালে থাকাকালীন এটি ব্যবহার করেছিল। স্কুল প্রশাসনও এমন পরিস্থিতিতে রিমোট স্টাডি এর অনুমতি দিয়েছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here