দিন দিন মাথার উপর চাপা ক্ষতির বোঝা কমাতে টেলিকম কোম্পানিগুলো তাদের প্ল্যানের দাম বাড়িয়েছে। আগের তুলনায় ভোডাফোন-আইডিয়া ও এয়ারটেল গ্রাহকদের এখন ৪২ শতাংশ বেশি খরচ হবে। এদিকে জিও গ্রাহকদেরও খরচ বেড়েছে ৪০ শতাংশ। জিও গতকাল তাদের নতুন প্ল্যান ঘোষণা করেছে। আগামী ৬ ডিসেম্বর থেকে এই প্ল্যান কার্যকরী হবে। এদিকে জিও নতুন প্ল্যান ঘোষণার পর থেকেই টেলিকম বিশেষজ্ঞরা কোন কোম্পানি অধিক সুবিধা দিচ্ছে তা খুঁজতে ব্যস্ত। তারা জানিয়েছে,  দাম বাড়ানোর পর ও অন্য কোম্পানিদের তুলনায় জিও ২৫ শতাংশ কমে পরিষেবা দিচ্ছে।
এ বিষয়ে রিলায়েন্স জিও একটি বয়ানে বলেছে, ‘ সবচেয়ে কমে সবচেয়ে ভালো পরিষেবা দেওয়ার কথা মাথায় রেখেই আমরা নতুন প্ল্যান নিয়ে এসেছি। আগের তুলনায় গ্রাহকদের খরচ বেড়েছে ঠিক ই, তবে তারা ৩০০ শতাংশ বেশি সুবিধা পাবে।’ আসুন আমরা জেনে নিই সত্যি জিও অন্য কোম্পানির তুলনায় কতটা সস্তা পরিষেবা দিচ্ছে।
২৮ দিনের প্ল্যান :
জিও তাদের ২৮ দিনের আনলিমিটেড প্ল্যান বাড়িয়ে ১৯৯ টাকা করেছে। এখানে এখন রোজ ১.৫ জিবি ডেটা, জিও থেকে জিও আনলিমিটেড এবং জিও থেকে অন্য নেটওয়ার্কে ১,০০০ মিনিট কলের জন্য পাওয়া যাবে। এই একই সুবিধা এয়ারটেলে পেতে গেলে ২৪৮ টাকা এবং ভোডাফোনে ২৪৯ টাকা দিতে হবে।
৮৪ দিনের প্ল্যান :
জিও তাদের ৩৯৯ টাকার প্ল্যানকে বাড়িয়ে ৫৫৫ টাকা করে দিয়েছে। এই প্ল্যানে গ্রাহকরা জিও থেকে জিও আনলিমিটেড কল করতে পারবে। তবে অন্য নেটওয়ার্কে কল করার জন্য ৩,০০০ মিনিট পাবে। এছাড়াও প্রতিদিন ১.৫ জিবি ডেটা দেওয়া হবে। তবে এই একই পরিষেবা ভোডাফোন ও এয়ারটেল যথাক্রমে ৫৯৯ টাকা ও ৫৯৮ টাকায় দিচ্ছে।
১২ মাসের প্ল্যান :
জিওর ১,৬৯৯ টাকার প্ল্যান এখন বেড়ে হয়েছে ২,১৯৯ টাকা। এই প্ল্যানে ৩৬৫ দিনের ভ্যালিডিটি পাওয়া যাবে। এখানে গ্রাহকরা জিও থেকে জিও আনলিমিটেড কল করতে পারবে। আবার অন্য নেটওয়ার্কে কল করার জন্য ১২,০০০ মিনিট পাবে। এছাড়াও এই প্ল্যানে রোজ ১.৫ জিবি ডেটা দেওয়া হবে। তবে এয়ারটেল ও ভোডাফোন গ্রাহকদের এই সুবিধা পেতে গেলে যথাক্রমে ২,৩৯৮ টাকা ও ২,৩৯৯ টাকা দিতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here