কেন্দ্রে ক্ষমতায় আসার পর মোদী সরকার ঘোষণা করেছিল যে, ভারতকে ‘নিউ ইন্ডিয়া’ বা ‘ডিজিটাল ইন্ডিয়া’ বানানো হবে । সাধারণ অর্থে ডিজিটাল ইন্ডিয়ার অর্থ প্রযুক্তির সহায়তায় ভারতবর্ষের বিভিন্ন অঞ্চল কে আধুনিক সমাজে রূপান্তরিত করা। যেখানে প্রতি গ্রামে গ্রামে থাকবে হাইস্পিড ইন্টারনেট কানেকশন। মানুষ ইন্টারনেটের মাধ্যমে প্রযুক্তির সহায়তায় ডিজিটালি ক্ষমতাবান হয়ে উঠবে।
কিন্তু সম্প্রতি সমস্ত টেলিকম কোম্পানির ট্যারিফ বাড়ানোর কে কেন্দ্র করে ডিজিটাল ইন্ডিয়ার উদ্যোগ ধাক্কা খাবে কিনা তা নিয়ে প্রশ্নচিহ্ন উঠে গেল। প্রসঙ্গত গত ৩ ডিসেম্বর এয়ারটেল ও ভোডাফোন আইডিয়া তাদের ট্যারিফ প্রায় ৪২ শতাংশ বাড়িয়েছে। আজ থেকে জিও ও ৪০% বেশি দামে প্ল্যান উপলব্ধ করেছে। যার ফলে গ্রাহকদের খরচ একলাফে অনেকটাই বেড়ে গেছে।
এদিকে নতুনভাবে প্ল্যানের দাম বাড়ায় চিন্তিত গ্রাহকরা। এবিষয়ে আমরা গড়িয়ার সুমন পাত্রের সাথে কথা বললে তিনি জানান, দিন দিন অপ্রত্যাশিতভাবে দাম বাড়াচ্ছে টেলিকম কোম্পানীগুলো। জিও শুরুতে সস্তায় প্ল্যান আনলেও এখন অনেক বেশি দামে রিচার্জ করতে হচ্ছে। মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহারে অভ্যস্ত হয়ে যাওয়ার পরই কোম্পানিগুলো দাম বাড়িয়ে চলেছে। তিনি আরও জানান, মানুষের কাছে ইন্টারনেট পরিষেবা না থাকলে কিভাবে ভারত ডিজিটাল হবে? সরকারের উচিত এবিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়া।
দিন দিন মাথার উপর চাপা বিশাল ক্ষতির বোঝা কমাতে সমস্ত টেলিকম কোম্পানি সিদ্ধান্ত নেয় প্ল্যানের দাম বাড়ানোর। কিন্তু  এই সিদ্ধান্ত কোম্পানিগুলোর জন্য লাভজনক হলেও সাধারণ মানুষের জন্য মোটেই সুখের নয়। দাম বেড়ে যাওয়ায় মানুষ বেশি বেশি ইন্টারনেট ব্যবহার থেকে বিরত থাকবে বলে অনেকের ধারণা। আর তা যদি সত্যি হয় তাহলে কেন্দ্রের ডিজিটাল ইন্ডিয়ায় স্বপ্ন নদীগর্ভে তলিয়ে যাবেনা তো ?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here