এখনকার দিনে অনলাইন গেমের কথা বললে আমাদের মনে সবার আগে আসে পাবজির কথা। ভারত ছাড়াও বিশ্বের বিভিন্ন দেশে দ্রুত বাড়ছে পাবজির ক্রেজ। তবে অস্বীকার করার কোন জায়গায় নেই যে পাবজির প্রতি যুবসমাজ ধীরে ধীরে আসক্ত হয়ে পড়ছে। প্রায় প্রতিদিনই আমরা শুনতে পাই পাবজি তে ডুবে থাকার কারণে চরম কোনো দুর্ঘটনা ঘটেছে। এরকমই আরো একটি ঘটনা আবার সামনে এলো।
হিন্দুস্থান টাইমস, এর রিপোর্ট অনুযায়ী কুড়ি বছরের একটি বালক পাবজি খেলার সময় জল ভেবে কেমিক্যাল খেয়ে ফেলায় মৃত্যু হয়েছে। সৌরভ যাদব নামে ওই ছেলেটি মোবাইলে পাবজি খেলছিল। আগ্রা ক্যান্টনমেন্টের রেলওয়ে পুলিশ জানিয়েছে, ছেলেটি তার বন্ধু সন্তোষ শর্মার সঙ্গে ট্রেনে করে যাচ্ছিল। সন্তোষ একটি সোনার দোকানে কাজ করে এবং তাদের ব্যাগে গহনা পরিষ্কার করার জন্য কেমিক্যাল ছিল।
সৌরভ পাবজি খেলতে এতই ব্যস্ত ছিল যে ব্যাগ থেকে জলের বোতল বার করার বদলে সে কেমিক্যালের বোতলটি বার করে ফেলে। এরপর সে কয়েক ঢোক খাওয়ার পরই বুঝতে পারে সেটি জল নয় এবং সাথে সাথেই অসুস্থ হয়ে পড়ে। এরপর আগ্রা ও গোয়ালিয়র এর মাঝে মোরেনা তে তার মৃত্যু হয়।
কিছুদিন আগে আরেকটি ঘটনা সামনে এসেছিলো,  যেখানে পাবজি খেলতে না দেওয়ায় বাবাকে খুন করেছিল ছেলে। এই ঘটনা ঘটেছিল কর্ণাটকের বেলাগাভি জেলায়। পুলিশ জানিয়েছে, ২৫ বছরের রঘুবীর কুম্ভারকে তার বাবা শঙ্কর দেবাপ্পা পাবজি খেলতে দিতে অস্বীকার করায় তাকে খুন হতে হয়েছে। শঙ্কর দেবাপ্পার বয়স হয়েছিল ৬১ বছর।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here