২০১৯ এ বেশ কিছু দেশে চালু হয়েছে 5G।  প্রায় সমস্ত বড় বড় স্মার্টফোন নির্মাতা কোম্পানি 5G ফোনের উপর কাজ শুরু করেছে বা লঞ্চ করে দিয়েছে। এই তালিকায় LG, Vivo, Xiaomi, Oppo, ZTE, Huawei এবং Honor এর নাম সামিল আছে। তবে এই সমস্ত কোম্পানিকে পিছনে ফেলে সবার উপরে আছে দক্ষিণ কোরিয়ান কোম্পানি Samsung । সম্প্রতি প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী ২০১৯ এর দ্বিতীয় কোয়ার্টারে ৫জি মার্কেটের ৭৪ শতাংশ দখল করে আছে স্যামসাং।
১০ শতাংশ মার্কেট শেয়ার কমেছে :
২০১৭ সালের দ্বিতীয় কোয়ার্টারে সমগ্র মার্কেটের ৮৪ শতাংশ স্যামসাংয়ের দখলে ছিল। তবে সম্প্রতি রিপোর্টে দেখা যাচ্ছে ১০ শতাংশ মার্কেট শেয়ার কমেছে দক্ষিণ কোরিয়ান কোম্পানির। এই রিপোর্টে তৃতীয় স্থানে আছে LG, যারা এখনো পর্যন্ত প্রায় ০.৪০ মিলিয়ন ৫জি ডিভাইস বিক্রি করেছে।
M সিরিজের নতুন ফোন আনছে স্যামসাং :
এদিকে নতুন আরেকটি রিপোর্ট অনুযায়ী স্যামসাং তাদের M সিরিজ কে আপগ্রেড করতে চলেছে। কয়েকদিন আগেই A সিরিজের দুটো ফোন Galaxy A51 এবং Galaxy A71 লঞ্চ করার পর কোম্পানি M সিরিজের নতুন ফোন Samsung Galaxy M11 এবং Galaxy M31 আনবে বলে রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে। এই দুটি ফোন গ্যালাক্সি এম১০ ও এম৩০ এর উত্তরসূরি হবে। যদিও এদের স্পেসিফিকেশন এখনও জানা যায়নি।
Samsung Galaxy M30 :
Samsung Galaxy M30 ফোনে পাবেন একটি ৬.৩৮ ইঞ্চির সুপার অ্যামোলেড ইনফিনিটি U ডিসপ্লে। এটির স্ক্রিন রেজল্যুশন হবে ১০৮০ × ২২২০ পিক্সেল। ফোনটিকে প্রায় বেজেললেসই বলা চলে।
নতুন এই স্মার্টফোনটিতে আছে ৪ জিবি/ ৬ জিবি র‌্যাম এবং ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। ফোনটি চলে স্যামসাং এর নিজস্ব এক্সিনোস ৭৯০৮ অক্টা-কোর প্রসেসরের দ্বারা। এই ফোনটির অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ৮.০ ওরিও এবং সাথে স্যামসাংয়ের এক্সপিরিয়েন্স ইউআই দেওয়া হয়েছে।
এছাড়া ফোনটিতে আছে একটি ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ। যার প্রধান ক্যামেরাটি ১৩ মেগাপিক্সেলের (এফ/ ১.৯), দ্বিতীয়টি ৫ মেগাপিক্সেলের(এফ / ২.২) এবং তৃতীয়টি ৫ মেগাপিক্সেলের (এফ/২.২) । তৃতীয় লেন্সটি হবে একটি ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স। এছাড়াও সামনে একটি ১৬ মেগাপিক্সেলের (এফ/ ২.০) সেলফি ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। ফোনটিতে আছে একটি ৫,০০০ এমএএইচ এর বিশাল ব্যাটারি যাতে ১৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here