টেলিকম রেগুলেটরি অথরিটি (ট্রাই) এবার আনলিমিটেড কলিং ও ডেটার উপর বিরাম লাগাতে পারে। রিপোর্ট অনুযায়ী, নিয়ন্ত্রক সংস্থা সমস্ত টেলিকম কোম্পানি ও COAI পরামর্শে ন্যূনতম কল এবং ডেটা রেট ঠিক করবে। প্রসঙ্গত ডিসেম্বর থেকেই তিনটি বেসরকারি কোম্পানি তাদের ট্যারিফ বাড়িয়েছে। এরফলে গ্রাহকদের খরচ বেড়েছে প্রায় ৪৩ শতাংশ। নতুন করে নূন্যতম রেট ধার্য হলে ব্যবহারকারীদের খরচ যে আরও বাড়বে তা বলার অপেক্ষা রাখেনা।
তিনটি টেলিকম কোম্পানি Airtel এবং Vodafone-Idea ৩ ডিসেম্বর থেকে এবং Reliance Jio ৬ ডিসেম্বর থেকে তাদের নতুন প্রিপেড প্ল্যান চালু করেছে।  যদিও পোস্টপেড গ্রাহকরা এখনো পুরানো মূল্যেই পরিষেবা উপভোগ করতে পারবে। টেলিকম কোম্পানিরা দাম বাড়ানোর বিষয়ে সাফাই দিয়েছে, দিনের পর দিন ARPU ( অ্যাভারেজ রেভিনিউ পার ইউজার ) কম হওয়ার কারণে তারা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এদিকে সুপ্রিম কোর্ট AGR বিবাদের মীমাংসা করে টেলিকম কোম্পানিগুলোকে ৯২,০০০ কোটি টাকা সরকারকে মেটানোর নির্দেশ দিয়েছে। যা পরিস্থিতিকে আরও জটিল করেছে বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞরা।
এদিকে গত ১২ ডিসেম্বর এয়ারটেলের প্রধান সুনীল ভারতী মিত্তাল কল ও ডেটার ন্যূনতম রেটের দাবিতে টেলিকম সচিবের সাথে দেখা করে। যার পরে ট্রাই গুরুত্বসহকারে এবিষয়ে দেখছে বলে জানা গেছে। কয়েকদিন আগে একটি বিবৃতিতে ট্রাইয়ের চেয়ারম্যান আরএস শর্মা জানিয়েছিলেন, টেলিকম সংস্থাগুলি গত ১৬ বছর ধরে ন্যূনতম কলরেট ধার্য করেনি। তবে ২০১৬ সালে টেলিকম সেক্টরে রিলায়েন্স জিও আসার পর প্রায় নিখরচায় কল এবং ডেটা পরিষেবা সরবরাহ করার পরে, অন্যান্য কোম্পানির বিপদ ডেকে আনে।
এমত পরিস্থিতিতে সমস্ত টেলিকম কোম্পানি নিজেদেরকে বাঁচাতে ট্রাইয়ের শরণাপন্ন হয়েছে। তারা চাইছে ট্রাই ডেটা ও কলের উপর নূন্যতম মূল্য ধার্য করুক। ফলে প্রতিটি কোম্পানি সেই দামের কমে পরিষেবা অফার করতে পারবেনা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here