Reliance Jio এর সাথে ভোডাফোন, এয়ারটেল ও ডিসেম্বরের শুরুতেই তাদের ট্যারিফ বাড়িয়েছে প্রায় ৪০ শতাংশ। রিচার্জের দাম বাড়ার কারণে অনেক গ্রাহকই চিন্তিত হয়ে পড়েছেন। যদিও কোম্পানিগুলো সাফাই দিয়েছে, তাদের ব্যবসায় ক্ষতি হওয়ার কারণে তারা প্ল্যানের দাম বাড়াতে বাধ্য হয়েছে। কোম্পানিগুলোর বিশ্বাস এরফলে তারা লাভের মুখ দেখবে। এদিকে রিচার্জের দাম বাড়ানো নিয়ে সম্প্রতি একটি খবরে ফের চিন্তা বাড়তে পারে গ্রাহকদের।
টেলিকম টকের একটি রিপোর্ট অনুসারে, সেলুলার অপারেটর অ্যাসোসিয়েশন অফ ইন্ডিয়া (COAI) এর মহাপরিচালক রাজন ম্যাথিউজ বলেছেন যে, লোকসান থেকে উদ্ধার করতে টেলিকম অপেরাটরদের দাম বাড়াতে হবে। এর সাথে তিনি আরও বলেন, প্রতি গ্রাহকপিছু গড়ে ২০০ টাকা আয় নিশ্চিত করা উচিত অপারেটরদের। টেলিকম অপারেটরদের প্রতিনিধিত্বকারী সিএএআই ও ট্রাই কে মার্কেটে ডেটা এবং ভয়েস কলের জন্য ফ্লোর প্রাইসিং নির্ধারণের জন্য অনুরোধ করেছে, যাতে গ্রাহকরা কোয়ালিটির ভিত্তিতে তাদের নেটওয়ার্ক অপারেটরটি বেছে নিতে পারে।
আসন্ন মাসগুলোতে ফের বাড়তে পারে দাম :
জানা গেছে সিএএআই এর অনুরোধের পর ট্রাই ফ্লোর প্রাইসিং নির্ধারণের জন্য কন্সালটেসন পেপার তৈরী করছে। যার ফলে আসন্ন কয়েকমাসের মধ্যে ফের প্ল্যানের দাম বাড়তে পারে। ট্রাই বর্তমানে এই বিষয়ে স্টেকহোল্ডারদের প্রতিক্রিয়ার অপেক্ষায় রয়েছে এবং তারপরেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। যদিও ঠিক কতটা দাম বাড়ানো হবে তা জানানো হয়নি।
সুবিধা পাবে এয়ারটেল :
ফ্লোর প্রাইসিং লাগু হলে সবচেয়ে বেশি সুবিধা এয়ারটেল পাবে বলেই মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল। কারণ তারা জানিয়েছে এয়ারটেল এই মুহূর্তে সারা ভারতে জিও ও ভোডাফোনের চেয়ে ভালো 4G পরিষেবা দেয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here