ভারতের বৃহত্তম টেলিকম কোম্পানিগুলোর একটি হলো এয়ারটেল। জিও-র নতুন ট্যারিফ প্ল্যান আসার পর থেকে অনেক গ্রাহক যুক্ত হয়েছে এয়ারটেলে। বহুমানুষ Airtel কে পছন্দ করেন এর মজবুত নেটওয়ার্ক ও নিত্যনতুন অফারের কারণে। সেকারণে অনেকের প্রাইমারি সিম এটি। প্রাইমারি সিম হওয়া সত্ত্বেও অনেক গ্রাহক আছে যারা কম কথা বলে এবং ডেটা ব্যবহার করে। এদের জন্য গতবছর থেকে কোম্পানি এয়ারটেল স্মার্ট রিচার্জ বা মিনিমাম রিচার্জ প্ল্যান নিয়ে এসেছে।
প্রথমে এই মিনিমাম রিচার্জ প্ল্যান শুরু হয়েছিল ৩৫ টাকা থেকে। এখানে গ্রাহকরা ২৬ টাকা টকটাইম পেত এবং ২৮ দিনের ভ্যালিডিটি পেত। তবে আজ কোম্পানি টুইট করে জানিয়েছে যে তাদের মিনিমাম রিচার্জ প্ল্যানের মূল্য বাড়ানো হচ্ছে। আর ৩৫ টাকার প্ল্যানটি বৈধ থাকবেনা। এখন থেকে গ্রাহকদের অন্ততপক্ষে ৪৫ টাকা রিচার্জ করতে হবে।
এয়ারটেল বাড়ালো তাদের মিনিমাম রিচার্জ প্ল্যানের মূল্য :
আজ এয়ারটেলের তরফে জানানো হয়েছে মিনিমাম রিচার্জ প্ল্যানের মূল্য ১০ টাকা বাড়ানো হলো। এবার থেকে গ্রাহকদের নম্বর সচল রাখতে হলে ৪৫ টাকা রিচার্জ করতে হবে। এখানে প্রতি সেকেন্ডে ২.৫ পয়সা চার্জ করা হবে।এছাড়াও ন্যাশনাল ভিডিও কলের জন্য ৫ পয়সা/সেকেন্ড, ডেটার জন্য ৫০পয়সা/এমবি, লোকাল এসএমএস এর জন্য ১ টাকা এবং ইন্টারন্যাশনাল মেসেজের জন্য ৫ টাকা চার্জ করা হবে। এই প্ল্যানের ভ্যালিডিটি ২৮ দিন। এরপর গ্রাহকরা আরও ১৫ দিন ইনকামিং কলের সুবিধা পাবে। এরমধ্যে রিচার্জ না করলে সেই সুবিধাও বন্ধ হয়ে যাবে।
কিছুদিন আগে এয়ারটেল তাদের ৫৫৮ টাকার প্ল্যানের ভ্যালিডিটি ও কম করে দিয়েছিলো। আগে যেখানে গ্রাহকরা এই প্ল্যানে ৮২ দিনের ভ্যালিডিটি পেত, এখন সেখানে ৫৬ দিনের ভ্যালিডিটি পাওয়া যাবে। এছাড়াও এই প্ল্যানের রোজ ৩ জিবি ডেটা, আনলিমিটেড ভয়েস কলিং ও অন্যান্য সুবিধাও দেওয়া হবে।
 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here