গতবছর অক্টোবর মাস থেকেই আমরা টেলিকম মার্কেটে ব্যাপক পরিবর্তন দেখেছিলাম। এর শুরু হয়েছিল Reliance Jio-র দ্বারা IUC লাগু থেকে। এরপরে ডিসেম্বরে সমস্ত বেসরকারি টেলিকম কোম্পানি তাদের প্ল্যানের দাম বাড়িয়েছে। যেখানে গ্রাহকদের খরচ বেড়েছে প্রায় দেড়গুণ। আবার সুবিধাও অনেক কমেছে। সেই কারণে আপনি যদি ভোডাফোন, এয়ারটেল বা জিও গ্রাহক হোন, তাহলে রিচার্জ করার আগে জেনে নেওয়া দরকার কোন প্ল্যানে কি সুবিধা পাওয়া যাচ্ছে। এই পোস্টে আমরা ভোডাফোন, এয়ারটেল ও জিওর ৫০০ টাকার কমের প্ল্যানগুলো সম্পর্কে বলবো, যেখানে ৫৬ দিন ভ্যালিডিটি পাওয়া যাবে।
রিলায়েন্স জিও ৪৪৪ টাকার প্ল্যান :
রিলায়েন্স জিও-র ৪৪৪ টাকার প্ল্যানের ভ্যালিডিটি ৫৬ দিন। এখানে গ্রাহকরা রোজ ২ জিবি ইন্টারনেট পায়।  এরসাথে জিও থেকে জিও আনলিমিটেড কল এবং জিও থেকে অন্য নেটওয়ার্কে কলের জন্য ২,০০০ মিনিট দেওয়া হয়। আবার জিও টিভি সহ জিও-র অন্যান্য অ্যাপ অ্যাক্সেস করা যায়।
এয়ারটেল ৪৪৯ টাকার প্ল্যান :
এই প্ল্যানটির ভ্যালিডিটি ও ৫৬ দিন। এখানে গ্রাহকরা রোজ ২ জিবি ডেটা পাবে। যদিও এসএমএস সংখ্যা কমিয়ে ১০০ টির পরিবর্তে এখানে রোজ ৯০ টি এসএমএস দেওয়া হবে। এছাড়াও সমস্ত নেটওয়ার্কে আনলিমিটেড কলের সুবিধা পাওয়া যাবে। আবার কোম্পানি এয়ারটেল থ্যাংকস বেনিফিট হিসাবে ফ্রি হ্যালো টিউন, আনলিমিটেড Wynk মিউজিক ও এয়ারটেল এক্সস্ট্রিম অ্যাপ প্রিমিয়ামের সুবিধা দেবে।
ভোডাফোন ৪৪৯ টাকার প্ল্যান :
এই প্ল্যানটির ভ্যালিডিটি ও ৫৬ দিন। এখানে গ্রাহকরা রোজ ২ জিবি ডেটা পাবে। যদিও এসএমএস সংখ্যা কমিয়ে রোজ ৯০ টি এসএমএস দেওয়া হবে। এছাড়াও সমস্ত নেটওয়ার্কে আনলিমিটেড কলের সুবিধা পাওয়া যাবে। আবার কোম্পানি গ্রাহকদের ভোডাফোন প্লে এর ফ্রি মেম্বারশিপ দেবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here