দিন দিন স্মার্টফোন যেমন আমাদের জীবনের এক গুরুত্বপূর্ণ অংশ হয়ে উঠছে, অন্যদিকে এর কারণে আমাদের বিপদের সম্মুখীন ও হতে হচ্ছে। প্রায়ই শোনা যায় উমুক কোম্পানির ফোনে আগুন লেগে বা ব্লাস্ট করার কারণে ব্যবহারকারী আঘাত পেয়েছেন বা তার মৃত্যু পর্যন্ত হয়েছে। এবার জনপ্রিয় স্মার্টফোন কোম্পানি স্যামসাংয়ের নাম জড়িয়ে গেলো এই ঘটনায়। গিজচীনার প্রতিবেদনে সম্প্রতি Samsung Galaxy S7 Edge ফোনে আগুন লাগার খবর প্রকাশিত হয়েছে।
এই ঘটনা ঘটেছে ৫২ বছর বয়সী সীমা আগরওয়ালের সাথে। তিনি জানিয়েছেন ২০১৬ সালে তিনি স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৭ এজ স্মার্টফোনটি কিনেছিলেন। এরপর থেকে ফোনটি খুব ভালো চলছিল। কিন্তু গত ডিসেম্বর মাসে ফোনটি ব্যবহার করতে করতে তিনি বুঝতে পারেন তার ফোনটি হঠাৎ বেশ উত্তপ্ত হয়ে উঠছে। সাথে সাথে তিনি ফোনটি ঘরের বাইরে নিয়ে যান এবং সেখানে ফোনটি ব্লাস্ট করে।
সীমা বলেছেন যে, তিনি ফোন চার্জ করতে সর্বদা আসল চার্জার ব্যবহার করতেন। এই ঘটনায় তিনি আঘাত না পেলেও, এতটাই আতঙ্কিত যে, আর কখনও ফোন না ব্যবহার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।
কেন ব্লাস্ট করে ফোন ?
উৎপাদনগত ত্রুটি :
উৎপাদনগত ত্রুটি স্মার্টফোন ব্লাস্ট করার প্রধান কারণ। স্মার্টফোনের শক্তি যোগায় লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারি। ফলে এটিকে সঠিকভাবে পরীক্ষা করে তবেই ফোনে ব্যবহার করা উচিত। অ্যাসেমব্লি লাইনে কোনো ভুল উপাদান দেওয়া হয়ে থাকলে ব্যাটারিকে ত্রুটিযুক্ত করে তোলে। যার ফলে ফোন ব্লাস্ট করতে পারে।
ব্যাটারিতে ফিজিক্যাল ড্যামেজ :
ব্যাটারির বর্তমান অবস্থা ফোন ব্লাস্টের কারণ হতে পারে। আমাদের হাত থেকে যখন ফোন পড়ে যায়, তখন ব্যাটারির অভ্যন্তরীণ যান্ত্রিক বা রাসায়নিক কাঠামোর পরিবর্তন হতে পারে। যার ফলে শর্ট সার্কিট, ওভারহিটিং প্রভৃতি সমস্যা দেখা দেয়। তাই যখন আপনার মনে হবে ব্যাটারি খারাপ হয়ে যাচ্ছে বা গেছে সেইমাত্র বদলে ফেলুন।
বাজার চলতি চার্জার :
ফোনে আগুন লাগার অন্যতম আরেকটি কারণ হলো বাজার চলতি চার্জার ব্যবহার করা। যেহেতু থার্ড পার্ট চার্জারগুলো আপনার ফোনের স্পেসিফিকেশন অনুযায়ী আসেনা, তাই এর দ্বারা চার্জ দিলে ফোনে সঠিকমাত্রায় পাওয়ার আসেনা। যার কারণে ফোন গরম হয়ে ব্লাস্ট হতে পারে।
সারারাত চার্জে বসিয়ে রাখা :
স্মার্টফোনকে কখনও সারারাত চার্জে লাগিয়ে রাখবেন না। যদিও এটি আমরা সবাই প্রায় করি। এটি না তো শুধু ফোনকে ওভারহিট করে এছাড়াও ব্যাটারিতেও প্রভাব ফেলে। পরবর্তীতে এই কারণেই ফোন ব্লাস্ট হতে পারে।
প্রসেসরের উপর চাপ পড়লে :
ফোন গরম হওয়ার পিছনে প্রসেসরের হাত থাকে। হাই গ্রাফিক্সের কোনো গেম খেলার ফলে প্রসেসরের উপর চাপ পড়ে। যার কারণে ফোন গরম হয়ে আগুন ধরে যেতে পারে। সেকারণে বাজেট ফোনে কখনোই হাই গ্রাফিক্সের গেম খেলা উচিত নয়।
ফোনকে রৌদ্রে রাখবেন না :
আপনি যদি দীর্ঘক্ষণ ফোনকে রোদে রাখেন তবে আপনার ফোন গরম হতে পারে। একটি পরীক্ষায় দেখা গেছে ফোনের স্ক্রিনে দীর্ঘক্ষণ সূর্যের আলো পড়লে ফোন গরম হয়। এরজন্য আপনি বাইরে বার হলে ফোনটিকে ব্যবহার না করলে ব্যাগের মধ্যে রাখুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here