ভারত একটি গণতান্ত্রিক দেশ। দেশের প্রত্যেকটি মানুষকে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করা উচিত। ভোট দেওয়ার জন্য সকলের একটি ভোটার কার্ড থাকা অবশ্যই প্রয়োজন। ভোটার কার্ড ভোট দেওয়া ছাড়াও আমাদের দৈনন্দিন জীবনে একটি গুরুত্বপূর্ণ আইডেন্টি কার্ড হিসেবে কাজে লাগে। কিন্তু অনেক সময় ভোটার কার্ডে ব্যক্তির নাম বা অন্যান্য ব্যক্তিগত তথ্যে ভুল থাকতে পারে। এই ভুল সংশোধনের জন্য আগে আমাদেরকে S.D.O বা B.D.O অফিস যেতে হতো। কিন্তু এখন অনলাইনেই ভোটার কার্ড সংশোধন করা সম্ভব। আজ আমরা কথা বলবো কিভাবে অনলাইনে ভোটার কার্ড সংশোধন করতে পারবেন।
ভোটার কার্ডের তথ্য সংশোধনের জন্য আপনাকে সর্বপ্রথম www.nvsp.in ওয়েবসাইটে ভিজিট করতে হবে। এখানে আপনি ‘লগ ইন’ অপশন দেখতে পাবেন।
আপনি যদি আগে থেকে পোর্টালে রেজিস্টার্ড না হন, তবে ‘Don’t have account, Register as a new User’ বাটনে ক্লিক করতে হবে। এখানে ফোন নম্বর ও ক্যাপচা এন্টার করে ‘Send OTP’ বাটনে ক্লিক করতে হবে। যার পরে আপনার ফোনে ওটিপি আসবে, যেটিকে বক্সে এন্টার করতে হবে। এরপর EPIC নম্বর, ইমেল দিয়ে একটি পাসওয়ার্ড সেট করতে হবে। মনে রাখবেন EPIC নম্বর ও পাসওয়ার্ড দিয়ে আপনাকে লগ ইন করতে হবে।
লগ ইন করার পর এবার বাম পাশে ‘Correction in Personal details’ অপশন দেখতে পাবেন। এখানে ক্লিক করতে হবে।
এবার নিজের নাকি ফ্যামিলির ভোটার কার্ড সংশোধন করবেন তা বেছে নিতে হবে।
এরপর আপনি আপনার রাজ্য, জেলা ও বিধানসভার নাম দেখতে পাবেন। এর নিচে নিজের নাম ও দেখা যাবে।
এরপর আপনি কোন তথ্য সংশোধন করতে চান, তার পাশের বক্সে টিক দিতে হবে।
এরপর যে তথ্য ঠিক করতে চান সেটি লিখতে হবে।
এরপর ইমেল আইডি ও মোবাইল নম্বর ও স্থান দিয়ে ক্যাপচা এন্টার করতে হবে।
এরপর নিচে সাবমিট বাটনে ক্লিক করতে হবে।ঠিক তারপরই আপনার ই মেইল আইডিতে একটি ই মেইল আসবে যাতে সেই অ্যাপ্লিকেশন এর সমস্ত তথ্য আপনি পেয়ে যাবেন। এই তথ্য ব্যবহার করে আপনি আপনার ভোটার কার্ডে ভুল সংশোধন অ্যাপ্লিকেশনের অবস্থা ট্র্যাক করতে পারবেন।
কি কি ডকুমেন্ট লাগবে :
এই ফর্মটি ফিলাপ করার জন্য প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট নির্ভর করবে কি কি তথ্য আপনাকে আপডেট করতে হবে তার উপর। যদি আপনার নামের বানানে ভুল থাকে তাহলে আপনি প্যান কার্ড ,জন্ম প্রমাণপত্র, পাসপোর্ট ইত্যাদি প্রমাণ হিসেবে দিতে পারেন। এছাড়া যদি আপনার ছবিতে ভুল থাকে তাহলে আপনাকে আপনার সঠিক ছবি স্ক্যান ( ২ এমবি) করে আপলোড করতে হবে।
ভোটার কার্ডের ঠিকানা কিভাবে পরিবর্তন করবেন :
এরজন্য আপনাকে www.nvsp.in ওয়েবসাইটে যেতে হবে এবং লগইন করতে হবে। এবার এখানে ‘ফর্ম’ অপশনে গিয়ে ৬ নম্বর ফর্ম নির্বাচন করতে হবে।
এরপর আপনাকে এই ফর্মটিতে রাজ্য, নাম, লিঙ্গ, জন্ম তারিখ এবং বাড়ির নম্বর সম্পর্কিত তথ্য পূরণ করতে হবে। এরপর আপনি দুটি বিকল্প পাবেন, যার প্রথমটি যদি প্রথমবার ভোটার হন এবং দ্বিতীয়টিতে অন্যান্য নির্বাচনী এলাকা থেকে পরিবর্তন। এখানে আপনার প্রয়োন অনুসারে বিকল্প বেছে নিতে হবে।
এরপর প্রয়োজনীয় তথ্য পূরণ করার পরে, আপনাকে আপনার পাসপোর্ট আকারের ছবি, বয়সের নথির প্রমাণ, আধার কার্ড বা ঠিকানা শংসাপত্র প্রমাণ হিসাবে স্ক্যান করে আপলোড করতে হবে। তবে এটি লক্ষ রাখতে হবে যে স্ক্যান কপির সাইজ যেন ২ এমবির বেশি না হয়।
এছাড়াও বর্তমান ঠিকানার জন্য আপনাকে বিদ্যুতের বিল বা গ্যাস কানেকশনের বিল দিতে হবে। ফর্মটি পূরণ করার পরে, আপনি রেফারেন্স আইডি পাবেন। এই আইডিটির সাহায্যে আপনি সহজেই আপনার ভোটার আইডি কার্ডটি ট্র্যাক করতে পারবেন।
আপনার আবেদন জমা দেওয়ার পরে, নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তারা এটি যাচাই করবেন এবং তথ্য সঠিকভাবে পাওয়া গেলে নতুন ভোটার আইডি কার্ডটি আপনার ঠিকানায় (নতুন) পাঠানো হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here