স্মার্টফোন শিপমেন্টের ক্ষেত্রে আমেরিকা কে পিছনে ফেললো ভারত। শুধু তাই নয়, সারা বিশ্বে ভারতের স্থান দ্বিতীয় (প্রথমে চীন)। ২০১৯ সালে স্মার্টফোন কোম্পানিগুলি ১৫৮ মিলিয়ন (১৫.৮ কোটি) স্মার্টফোন এদেশে এনেছে। এই তথ্য প্রকাশ করেছে কাউন্টারপয়েন্ট। তাদের বার্ষিক এই রিপোর্ট অনুযায়ী, গতবছরের তুলনায় এবারে ৭ শতাংশ বেশি স্মার্টফোন এদেশে এসেছে। এতদিন ভারত কখনো বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম স্মার্টফোন মার্কেট হিসাবে উঠে আসেনি।
কাউন্টারপয়েন্ট তাদের রিপোর্টে বলেছে, ভারতে গতবছরে মিড রেঞ্জ স্মার্টফোনের চাহিদা বৃদ্ধির কারণে এই ঘটনা ঘটেছে। এদিকে চীনা স্মার্টফোন কোম্পানিগুলি ও মিড বাজেট রেঞ্জে প্রিমিয়াম ফিচারের ফোন আনছে এবং অনলাইন প্লাটফর্মগুলি এই ফোনকে দ্রুত গ্রাহকদের কাছে পৌঁছে দিচ্ছে। আর এইসবের কারণে ভারত এখন বড় স্মার্টফোন মার্কেটে পরিণত হয়েছে।
সবার উপরে Xiaomi-র :
কাউন্টারপয়েন্ট এর রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে, ভারতের ২৮ শতাংশ মার্কেট দখল করে আছে Xiaomi, আবার ২১ শতাংশ শেয়ার সহ Samsung দ্বিতীয়স্থানে আছে। এই দুই কোম্পানির পরে আছে Vivo, যাদের দখলে ১৬ শতাংশ মার্কেট। এরপর আছে যথাক্রমে Realme ও Oppo, যাদের মার্কেট শেয়ার যথাক্রমে ১০ শতাংশ ও ৯ শতাংশ। এদিকে ২০১৯ সালে শাওমি-র জনপ্রিয় ফোন Redmi 7A কেবল ভারতে নয়, সমগ্র বিশ্বের বেস্ট সেলিং(তৃতীয় কোয়ার্টারে) স্মার্টফোন ছিল বলে জানিয়েছে কাউন্টারপয়েন্ট।
এদিকে ভারতের সমগ্র মার্কেট বাদ দিয়ে যদি কেবল অফলাইন মার্কেট ধরি, তাহলে Vivo এগিয়ে। অফলাইনে ভিভো-র মার্কেট শেয়ার ২৪.৭ শতাংশ। যা দক্ষিণ কোরিয়ান কোম্পানি স্যামসাংয়ের থেকেও বেশি। ভারতীয় অফলাইন মার্কেট স্যামসাংয়ের দখলে আছে ২১.৬ শতাংশ, যেখানে শাওমির দখলে আছে ২১.৫ শতাংশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here