রিয়েলমি নতুন বছরের শুরুতেই তাদের ফ্ল্যাগশিপ ফোন Realme X50 5G চীনে লঞ্চ করেছিল। যদিও এতদিন ধোঁয়াশা ছিল এই ফোনটি ভারতে আসবে কিনা। কিন্তু রিয়েলমি ইন্ডিয়ার সিইও তার AskMadhav এর লেটেস্ট এপিসোডে জানিয়েছেন, Realme X50 এর থেকে আরও বড় ও উন্নত ডিভাইস ভারতে আনা হবে। ফলে Realme X50 5G কে আমরা ভারতে না দেখতেও পেলেও, এর থেকেও আরও আকর্ষণীয় ফিচারের ফোন যে দেখতে পাবো তা বলার অপেক্ষা রাখেনা।
মনে করা হচ্ছে বড় ও উন্নত ডিভাইস বলতে মাধব শেঠ Realme X50 Pro এর কথা বলেছেন। শেঠ সমস্ত রিয়েলমি প্রেমীদের উদ্দেশ্যে জানিয়েছে,’ মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস ইভেন্টে রিয়েলমির সাথে জুড়ে থাকতে’, কারণ এই টেকনোলজি ইভেন্টে কোম্পানি ভারতের জন্য কিছু নতুন আনার চেষ্টা করছে। হয়তো এই ইভেন্টেই রিয়েলমি এক্স৫০ প্রো লঞ্চ করা হবে। যেটি তারপরেই ভারতে আসবে।
প্রসঙ্গত জানুয়ারির ৭ তারিখে চীনে লঞ্চ হয়েছে Realme X50 5G। রিয়েলমির নতুন এই ফোনটি না কেবল 5G সাপোর্টের সাথে এসেছে, এখানে অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে দেওয়া হয়েছে অ্যান্ড্রয়েড ১০। রিয়েলমি এক্স৫০ এর দাম শুরু হয়েছে ২,৪৯৯ Yuan থেকে, যা প্রায় ২৫,৭৯০ টাকা। এই দাম ফোনটির ৮ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজের। এছাড়াও অন্যদুটি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্ট হলো ৬ জিবি র‍্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজ এবং ১২ জিবি র‍্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজে। এই দুই ভ্যারিয়েন্টের দাম যথাক্রমে প্রায় ২৭,৮৬০ টাকা এবং ৩০,৯৬০ টাকা।
Realme X50 5G ফিচার :
রিয়েলমি এক্স৫০ ৫জি ফোনে পাবেন ৬.৫৭ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে। যার আসপেক্ট রেশিও ২০:৯ এবং রিফ্রেশ রেট ১২০হার্জ। এই ফোনে আপনি ইন ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরের বদলে সাইড মাউন্টেড সেন্সর পাবেন। ফোনটি এসেছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭৬৫জি প্রসেসরের সাথে। এছাড়াও এতে আছে ১২ জিবি পর্যন্ত র‍্যাম ও ২৫৬ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ বাড়ানো যাবেনা।
ফটোগ্রাফির জন্য রিয়েলমির এই ৫জি ফোনের পিছনে ৪টি রিয়ার ক্যামেরা আছে। আবার সামনে আছে ২টি ফ্রন্ট ক্যামেরা। পিছনের ৪টি ক্যামেরার মধ্যে প্রধান সেন্সর হলো ৬৪ মেগাপিক্সেল। অন্য তিনটি সেন্সর হলো ১২ মেগাপিক্সেল, ৮ মেগাপিক্সেল এবং ২ মেগাপিক্সেল। সেলফির জন্য দুটি ক্যামেরা হলো ১৬ মেগাপিক্সেল এবং ৮ মেগাপিক্সেল।
রিয়েলমি এক্স৫০ ফোনে আপনি পাবেন ডুয়েল চ্যানেল ওয়াই-ফাই ও ৫জি কানেক্টিভিটি। আপনি ফোনটিকে একসাথে দুটো নেটওয়ার্কেই কানেক্ট করে রাখতে পারবেন। এই ফোনে অ্যান্ড্রয়েড ১০ ভিত্তিক কালারওএস ৭ এর সাথে এসেছে। এছাড়াও এই ফোনে ৩০ ওয়াট ভুক ৪.০ ফাস্ট চার্জিং এর সাথে ৪,২০০ এমএএএইচ ব্যাটারি রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here