ব্যান উঠলেও অ্যান্ড্রয়েড সহ গুগলের প্রোডাক্ট ব্যবহারে রাজি নয় Huawei

0
645

ব্যান হওয়ার পর থেকেই আমেরিকান কোম্পানিগুলোর উপর নির্ভরতা কমাতে চাইছে হুয়াওয়ে। প্রসঙ্গত গতবছর মে মাসে আমেরিকা প্রশাসন হুয়াওয়ে কে ব্ল্যাক লিস্ট করেছিল। এরপর গুগল সহ আমেরিকার বিভিন্ন কোম্পানির হুয়াওয়ের সাথে ব্যাবসা বন্ধ করে দেয়। বাধ্য হয়ে হুয়াওয়েকে অ্যান্ড্রয়েড ছেড়ে নিজস্ব ওএস তৈরী করতে হয়।
চীনা মার্কেটে সমস্যা নেই :
ব্যানের পর গুগল হুয়াওয়ের সাথে ব্যবসা করতে অস্বীকার করলে, হুয়াওয়ে নিজেদের সেটআপ প্রস্তুত করে কয়েকটি স্মার্টফোন লঞ্চ করে। সেখানে দেখা যায় বাইরের দেশে গুগলের প্রোডাক্টের (অ্যান্ড্রয়েড, ম্যাপ ইত্যাদি) প্রয়োজন অনুভব হলেও, চীন কোম্পানির কোনো সমস্যা হচ্ছেনা।
HarmonyOS লঞ্চ করে হুয়াওয়ে :
অ্যান্ড্রয়েডের বিকল্প হিসাবে হুয়াওয়ে HarmonyOS নিয়ে আসে। এই অপারেটিং সিস্টেম স্মার্টফোন, স্মার্ট স্পীকার ছাড়াও সেন্সরেও ব্যবহার করা যাবে। কোম্পানির তরফে জানানো হয়, হারমোনি অপারেটিং সিস্টেমটি প্রথমে টিভি এবং স্মার্টফোনের মতো স্মার্ট স্ক্রিন যুক্ত প্রোডাক্টে ব্যবহৃত হবে। পরের তিন বছরে, এটিকে অন্যান্য ডিভাইস যেমন গাড়ির হেড ইউনিটে ব্যবহার করা হবে।
এদিকে আমেরিকা হুয়াওয়ের উপর থেকে সাময়িক ব্যান তুলে নিলেও, তারা গুগলের অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহার করতে ইচ্ছুক নয়। কোম্পানি ইতিমধ্যেই লক্ষ লক্ষ ডলার তাদের ওএস এর উপর খরচ করেছে, যাতে ডেভেলপাররা HarmonyOS এর উপর অ্যাপ্লিকেশন তৈরী করে। কোম্পানির তরফে বলা হয়েছে, গুগলের ইকোসিস্টেম এখনও আমাদের প্রথম পছন্দ হলেও, খুব বেশিদিন আমরা তা ব্যবহার করবো না। নিজেদের শক্তির উপর আমাদের ভরসা আছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here